Main Menu

টেলিফোন, টিয়া পাখি ও ফুটবল মার্কার সমর্থনে গোকর্ণঘাটে ব্যাপক গণসংযোগ

+100%-

সঞ্জয় কর্মকার :: বিএনপি মনোনিত একক প্রার্থী হাজী মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেন ভোট ছিনতাইয়ের চেষ্টা করলে কঠোর জবাব দেয়া হবে। ৩১ তারিখের নির্বাচনে সুষ্ঠ পরিবেশ বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন জেলা বিএনপির  সহ-সভাপতি ।
৩১ মার্চ আসন্ন সদর উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি মনোনিত প্রার্থীর সমর্থনে ২৫ মার্চ মঙ্গলবার গোকর্ণঘাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় (উত্তর পাড়া) সংলগ্নে এক বিশাল গণসংযোগকালে এ কথা বলেন।

গোকর্ণঘাট ৭নং ওয়ার্ড বিএনপি সভাপতি লাহু মিয়ার সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ৭ নং ওয়ার্ড ছাত্রদল সভাপতি মোঃ পলাশ মিয়া।

সভায় প্রধান অথিতি হিসেবে ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী জাহাঙ্গির ( টেলিফোন মার্কা ),ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী বুলবুল আহমেদ মুছা ( টিয়া পাখি মার্কা ) এবং জেলা কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা (কচি) এবং দপ্তর সম্পাদক এ,বি,এম মোমিলুল হক,  ক্রিড়া সম্পাদক আজিজুর রহমান, জেলা যুবদলের আহবায়ক মনির হোসেন, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এডঃ আনিসুর রহমান মঞ্জু, ছাব্বির আহমেদ, এডঃ মাসুদ, রাশেদ কবির, হাফিজউল্লাহ প্রমূখ।

উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন ৭নং ওয়ার্ডের সহ সভাপতি হাজী সৈয়দ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ইউছুব মিয়া, দপ্তর সম্পাদক আলমগীর হোসেন, যুবদলের সভাপতি সাদেকুর রহমান সাদু, যুগ্ন আহ্বায়ক গোলাপ হোসেন, কৃষকদল সভাপতি কামাল মিয়া, যুবধল নেতা মনির হোসেন, জামির হোসেন,  ছয়বাড়িয়ার যুবদল নেতা শাহীন মিয়া, আমিনপুর যুবনেতা নুরুল হক, মাহফুজ মিয়া, সুলতান, বাছির মিয়া সহ আরো অনেক নেতৃবৃন্দ।

সভায় বক্তৃতা রাখেন ৭নং ছাত্রদল সভাপতি পলাশ, ওয়ার্ডের যুবদল ও কৃষকদল সভাপতি এবং সদর উপজেলার কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ সভাপতি হফিজুর রহমান মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকন, দপ্তর সম্পাদক এ,বি,এম মোমিলুল হক, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী বুলবুল আহমেদ মুছা এবং প্রধান অথিতি হাজী জাহাঙ্গির।

বক্তারা বলেন, বিএনপি মনোনিত প্রার্থীদের ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে দেশের এই সংকট দূর করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান করেন। তারা আরো বলেন, ব্যক্তি থেকে দল বড়, তাই দলের মনোনিত প্রার্থীকেই ঐক্যবদ্ধভাবে বিজয়ী করাতে হবে।


প্রধান অথিতি তার বক্তৃতায় বলেন, গত ৫ই জানুয়ারীর নির্বাচনে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার প্রতি সন্মান দেখিয়ে বাংলার মানুষ ভোট কেন্দ্রে যায়নি, আজ যখন নেত্রী ডাক দিয়েছেন, তখন বিজয় আমাদের হবেই। তাই দেশের এই অস্থিতিশীলতা দূর করতে জনমত নির্বিশেষে সবাইকে ভোটের দিন ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত থেকে টেলিফোন, টিয়া পাখি ও ফটবল মার্কায় ভোট প্রদান এবং মাঠে থেকে জাল ভোট বর্জন করতে আহ্বান জানান।

সভা শেষে এক বিরাট গণমিছিল বের করে প্রধান অথিতিকে সমর্থন প্রদর্শিত করা হয়।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares