Main Menu

থানার ইট খুলে নেয়ার হুমকি : কসবা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে শোকজ

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মনির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন রিমনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

কসবা থানা ভবনে ঢুকে থানার ইট খুলে নেয়ার হুমকি দেয়ার ঘটনায় রোববার তাদের এ নোটিশ দেয়া হয়। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তাদের কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত নোটিশে বলা হয়, গত ৩১ মার্চ রাতে কসবা থানা ভবনে এক অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে। সেখানে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মনির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. আফজাল হোসেন রিমনের জড়িত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মনির ও আফজালের বিরুদ্ধে কেনো সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তাদের কারণ দর্শাতে বলা হলো।

এদিকে, থানা ভবনে ঢুকে থানার ইট খুলে নেয়ার হুমকির ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনার পর পুলিশের পক্ষ থেকে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। বিষয়টি আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

উল্লেখ্য, গত ৩১ মার্চ বিকেলে কসবা রেলওয়ে স্টেশনে আলম নামে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে পুলিশ মাদক সেবনে বাধা দিলে তিনি পুলিশের ওপর হামলে পড়েন। এসময় পুলিশ তাকে একটি নম্বরবিহীন মোটরসাইকেলসহ আটক করে থানায় নেয়।

এ ঘটনায় রাতে কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে ৪০/৫০ জন নেতাকর্মী থানা ভবনে হানা দেন। তারা থানার প্রতিটি খুলে নেয়ার হুমকি দেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি)। থানা ভবনের প্রধান ফটকে লাথি মেরে ভেতরে ঢুকে ওসিসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে অসদাচরণ করেন।

আরো পড়তে পারেন..

কসবা থানার একটি একটি ইট খুলে ফেলার হুমকি দিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares