Main Menu

সরাইলে সন্ধ্যায় সড়কে ডাকাতি

+100%-

মোহাম্মদ মাসুদ, সরাইল ॥ সরাইলে সন্ধ্যা রাতেই সড়কে দূর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। ডাকাত দলের হামলায় চালক সহ আহত হয়েছেন ৫ জন। নগদ টাকা ও মুঠোফোন সেট সহ অর্ধলক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নিয়েছে। গত সোমবার সন্ধ্যা পোনে ৭টার দিকে সরাইল-নাসিরনগর-লাখাই আঞ্চলিক মহাসড়কের কালীকচ্ছ ধর্মতীর্থ এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।
ডাকাত দলের কবলে পড়া যাত্রী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার সন্ধ্যা পোনে ৭টার দিকে নাসিরনগর থেকে সরাইল ও ব্রাহ্মণবাড়িয়াগামী যাত্রীবাহী ১টি টেম্পু সহ ৪-৫টি সিএনজি চালিত অটোরিকশাকে অধিক ক্ষমতা সম্পন্ন টর্চ লাইটের আলো ফেলে আটক করে সংঘবদ্ধ মুখোষধারী একদল ডাকাত। তারা চালক ও যাত্রীদের উপর হামলা চালিয়ে হকিষ্টিক, রামদা ও লোহার রড দিয়ে এলোহাতাড়ি আঘাত করে নগদ টাকা, মুঠোফোন সেট ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ডাকাত দলের হামলায় চালক সহ অন্তত ৫ জন আহত হয়েছেন। ভাংচুর করেছে ২-৩ টি অটোরিকশা।

আহতদের মধ্যে আখাউড়া উপজেলার আজমপুর গ্রামের আমোদাবাদ এলাকার কাশেম ভূঁইয়ার ছেলে ব্যবসায়ি রাহিম ভূঁইয়া (২৬), টেম্পু চালক নাসির মিয়া ও কালীকচ্ছ মনিরবাগের অটোরিকশা চালক এনাম মিয়া। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আহত যাত্রী স্বপ্নকলি বিস্কুট ফ্যাক্টরির মালিক রাহিম ভূঁইয়া জানান, নাসিরনগর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে মালামাল বিক্রি করে টাকা নিয়ে জেলা শহরে ফিরছিলাম। ডাকাতরা ভূঁইয়ার ঘাট ও ধর্মতীর্থ বড় ব্রীজের মাঝামাঝি স্থানে একদল ডাকাত আমাদের টেম্পটি আটক করে মারধর শুরু করে। রাহিম ডাকাতদের সাথে অনেক্ষণ ধস্তাধস্তি করেন। এক পর্যায়ে আহত হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে শুয়ে পড়েন। এ সময় আরো ৩-৪ টি যাত্রীবাহী অটোরিকশা আটক ডাকাতরা। আমার পকেটে থাকা ৩০-৩৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। আশপাশের লোকজনের চিৎকারে এক সময় ডাকাতদল সড়ক থেকে নেমে হাওরের দিকে পালিয়ে যায়। চালক নাসির বলেন, আমাকে প্রথমে মারধর করে। পরে এলোপাতাড়ি অটোরিকশা গুলোতে কূপাতে থাকে। ডাকাতরা ২-৩টি অটোরিকশার সামনের গ্লাস ও বডি ভাংচুর করেছে। পাকশিমুল ইউপি চেয়ারম্যান মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, নিজের চোখে ওই ডাকাতির ঘটনা দেখেছি। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছি।

সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ২-৩টি অটোরিকশা ভাংচুরের খবর পেয়েছি। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares