Main Menu

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা কালিসীমা গ্রামে দুইপক্ষের ফের সংঘর্ষ

+100%-

নিজস্ব সংবাদদাতা: ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের কালিসীমা গ্রামে দুলা কাজী গোষ্ঠি ও বুদাই মোল্লা গোষ্ঠির মধ্যে আজ শুক্রবার সকাল ৯ ঘটিকার সময় ফের সংঘর্ষ বাদে। এতে উভয় পক্ষের শতাধিক বাড়ি-ঘর ও আসবাব পত্র ভাংচুর হয়েছে এবং অত্যন্ত পক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়াও ফসলী জমির প্রচুর ক্ষতি সাধিত হয়েছে।


এ সময় সাদেক পুর-দায়রা পুর সড়কের যান চলাচল ঘন্টা ব্যাপি বন্দ থাকে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি আবদুর রব এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারশ্যাল নিক্ষেপ করে এবং ঘটনাস্থল থেকে তিন জনকে আটক করে। এছাড়াও গতকাল বৃহস্প্রতিবার রাত ৮টায়  উভয় পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এলাকার পরিস্থিতি থমথমে বিরাজ করছে এবং রাস্তার মোড়ে মোড়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এলাকা সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুলা কাজী গোষ্ঠির শাহ আলম মিয়ার নেতৃত্বে ও বুদাই মোল্লা গোষ্ঠির সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন মিয়ার নেতৃত্ব এই এই সংঘর্ষ বাদে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি আব্দুর রব ব্রাহ্মণবাড়িয়া টুয়েন্টিফোর ডট কমকে জানান, বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থায় আছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares