Main Menu

নবীনগরে ৪ দিনে ৬ জনের অপমৃত্যু

+100%-

deathএস এ রুবেল,নবীনগর প্রতিনিধিঃনবীনগর উপজেলায় পৃথক পৃথক ঘটনায়  গত ৪ দিনে ৬ জনের অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্যে পাওনাদারের কাছ থেকে টাকা উদ্ধার করতে না পেরে এক মহিলা বিষপানে আত্মহত্যা করেন। এর মাঝে কেরির বড়ি খেয়ে তিনজন  সাপের কামরে একজন ও অন্যজন বিদ্যুতস্পৃষ্ঠে মারা যান।

সুত্র জানায়, উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের জুলাইপাড়া গ্রামের আবুল হামিদ মিয়ার ছেলে কাউছার মিয়া গত রবিবার বিকেলে ঘরের লোকজনের সাথে রাগ করে কেরির বড়ি খেয়ে ফেললে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এছাড়াও একই ইউনিয়নের আকবপুর গ্রামে সফিউল্লা (৮) নামে এক শিশুকে সাপে কামর দিলে আহতাবস্থায় তাকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিতসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।সফিউল্লা আকবপুর গ্রামের আব্দুল আউয়াল মিয়ার ছেলে।

অপরদিকে পাওনা টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে ভুক্তভোগী এক মহিলা পাওনাদারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভিতরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাথে থাকা বিষের বোতল থেকে বিষ খেয়ে ফেললে তাতক্ষনিক থাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানেই তিনি মারা যায়।

অন্যদিকে গত মঙ্গলবার দুপুরে সোনিয়া আক্তার (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্রী কীটনাশক (কেরির বড়ি) খেয়ে আত্মহত্যা করে । সে উপজেলার শ্যামগ্রাম দঃ পাড়ার প্রবাসী মিন্টু মিয়ার কনিষ্ঠ কন্যা। এ ঘটনার পরদিন একই ইউনিয়নের শ্রীঘর গ্রামে কেরির বড়ি খেয়ে শিখা রানী দাস (১৬) নামের এক যুবতী আত্মহত্যা করে। তার মৃত্যু নিয়ে এলাকায় লোকমুখে শুনা যায় সে ধর্ষিত হয়ে লজ্জায় আত্মহনের পথ বেছে নেয়। e ব্যাপারে সলিমগঞ্জ ক্যাম্প ইনচার্জ এস আই গোলাম মোস্তফা ময়না তদন্তের জন্য লাশ  জেলা মর্গে পাঠিয়েছে। তবে ধর্ষনের চেষ্টা চালানোর কারনেই কি এ মৃত্যু জানতে চাইলে তিনি জানান, এলাকায় নানা জনে নানান কথা বলছে।পোষ্ট মর্টেম রিপোর্ট হাতে আসার পর তদন্ত সাপেক্ষে পুরু বিষয়টি খোলাসা হবে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares