Main Menu

ইসলাম জঙ্গী, সন্ত্রাস, ঝুলুম- অত্যাচারের ধর্ম নয় —–আলহাজ্ব ডাঃ মোহাম্মদ বজলুর রহমান

+100%-

dr.bazlur rahmanমহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ্পাক পবিত্র কোরআনে ঘোষণা করেছেন “নিশ্চয়ই ইসলাম আল্লাহ্র একমাত্র মনোনীত ধর্ম। একজন মানুষ অন্য একজন নিরাপরাধ (যে কোন ধর্মের হোক) মানুষকে অন্যায়ভাবে হত্যা করলে, সে যেন পৃথিবীর সকল মানুষকে হত্যা করার সমান পাপ করলো এবং পরকালে সে চিরস্থায়ী জাহান্নাম অর্জন করলো। হত্যাকারীর বিচার তাকে কতল করা, অর্থাৎ তাকে হত্যা করা আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে। ইসলাম জোর জবরদস্তি পছন্দ করে না।”
ইসলাম শান্তির ধর্ম, ধৈর্য্য ও সহিষ্ণুতার ধর্ম। বর্তমানে ইসলামের অপব্যাখা করে কতিপয় পথভ্রষ্ট ব্যক্তি, দল বা গোষ্টি পৃথিবীতে ইসলাম ধর্মের উপর বদনাম ও কলঙ্ক লেপন করছেন। কিছু কিছু মানুষকে ধর্মচ্যুত করে জঙ্গী ও সন্ত্রাস কর্মকান্ডে প্ররোচিত করছেন, তারা কখনও নিজকে মুসলমান দাবী করতে পারেন না। একজন মুসলমান সর্বদা আল্লাহকে ভয় করেন, অন্যায় অপরাধ করা থেকে বিরত থাকেন এবং পরকালে আল্লাহ্র আযাবের কথা চিন্তা করে সর্বদা ইসলামের হুকুম আহকাম মানতে ব্যস্ত থাকেন। বর্তমান মুসলমানগণ আল্লাহ্র হুকুম আহকাম এবং নবী করিম (সাঃ) এর সুন্নত থেকে অনেক দূরে সরে গেছেন। পূর্বে দেখা গেছে- মুসলমান সন্তানেরা পাঞ্জাবী লুঙ্গি পড়ে মক্তব মাদ্রাসায় গিয়ে নামাজ কালাম শিখেছেন এবং তা আমল করেছেন। বর্তমান আধুনিক যুগে এ ব্যবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে। প্রায় ১৫শত বৎসর পূর্বে পৃথিবীতে যখন অন্যায়, ঝুলুম, হত্যা, ভ্যাবিচার এবং আরও অনেক গর্হিত কাজ বিস্তার হয়ে জাহিলিয়াতির যুগ দেখা দেয়। তখন মহান আল্লাহ্ পাক তার মনোনীত একমাত্র ধর্ম ইসলামকে হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) এর মাধ্যমে দুনিয়াতে প্রেরণ করলেন এবং পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হলো। দূর হলো ঝুলুম, অত্যাচার, হত্যা, সন্ত্রাস, ইত্যাদি, দলে দলে মানুষ সেচ্ছায় গ্রহণ করতে লাগল শান্তির ধর্ম ইসলাম। রাসুল (সাঃ) এর সময় সাহাবায়ে কেরাম (রাঃ) তাবেঈন তাবে- তাবেঈনদের সময় সমগ্র পৃথিবীতে ইসলামের শান্তি বিস্তার লাভ করেছিল। প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল শান্তির শাসন। কাউকে জোর করে নয় স্বেচ্ছায় মানুষ ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত হয়েছিল। ইসলামের শ্বাশত বাণী মানুষকে আকৃষ্ট করেছিল।

আজ কোথায় গেল সেই ইসলাম? হে আল্লাহ্ আমাদেরকে ফিরিয়ে দিন ইসলামের সেই স্বর্ণযুগ, খোলাফায়ে রাশিদীনের যুগ। রক্ষা করুন আমাদেরকে জঙ্গী, সন্ত্রাস, ঝুলুম- অত্যাচারের হাত থেকে, ইসলামে যার কোন স্থান নেই। আমিন।প্রেস রিলিজ






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares