Main Menu

নাসিরনগরে ১৮টি চোরাই গরুসহ পাচ চোরকে আটক করে থানায় সোপর্দ

+100%-

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ঃ মঙ্গলবার ভোর রাতে ভলাকুট ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ও এলাকাবাসীর সহযোগীতায় ১৮টি চুরাই গরুসহ পাঁচ চোরকে আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। জানা গেছে, কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম উপজেলার হাওড় অঞ্চলের বাতান থেকে উক্ত গরু গুলো চুরি করে নৌকাযোগে ভলাকুট এনে পাচারের সময় জনতার সন্দেহ হলে তারা গরু গুলো আটক করে। ওই সময়ে ভলাকুট ইউনিয়নের ভলাকুট গ্রামের গরু চোর চক্রের সদস্য নজির খার পুত্র আলাল খাঁর ঘর থেকে ৩টি ওয়াদুদ ঘর থেকে ৫টি, জাহাঙ্গীরের ঘর থেকে ১১টি, ইদন খার পুত্র আইবুল্লা খাসহ অন্যান্য চোরেরা পালিয়ে যায়। পরে ভলাকুট ইউপি চেয়ারম্যান এস এম বাকি বিল্লাহ জুয়েলের নেতৃত্বে বেলা ২ ঘটিকার সময় ভলাকুট কান্দিপাড়া থেকে ইটনা ও মিঠামইন এলাকার তিন ও ভলাকুটের দুই চোরকে আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ আব্দুল কাদের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি জানান, ১৮টি গরুর মূল্য প্রায় পাঁচ লক্ষ টাকা হবে। সেই সাথে গরু পাচারে জড়িত একটি নৌকা ও আটক করা হয়েছে। চেয়ারম্যান জুয়েল জানান, ১৮টি গরু আটক করতে পারলেও আরো ৫টি গরু নিয়ে পালিয়েছে চোরেরা। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অবরাধে মনকুটা গ্রামের তোতা মিয়ার ছেলে সাদেক মিয়া(৩০), আজমীরিগঞ্জের কামালপুর গ্রামের ইমান আলীর ছেলে নূরজামান (২৫), ভলাকুট গ্রামের তারা মিয়ার ছেলে ফিরোজ মিয়া(৩৮), ক্ষিরোদ ভূষণ সাহাজীর ছেলে সুভারঞ্জন(৩০), ইটনা গ্রামের ইছব মিয়া(৩৮)কে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তাদের কাছথেকে দুই রাম দা, একটি ছুরি ও একটি লোহা কাটার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া টুয়েন্টিফোর ডটকম এর প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে কপি-পেস্ট কঠোরভাবে নিষিদ্ধ, অনুমতি ছাড়া কপি-পেস্ট করা কপিরাইট আইনে বিচার যোগ্য!






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares