Main Menu

মা বসলেন ভাইস চেয়ারম্যানের চেয়ারে, আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম অফিস করলেন এডভোকেট লোকমান

+100%-

মায়ের একধার দুধের দাম, কাটিয়া গায়ের চাম, পাপোশ বানাইলেও ঋনের শোধ হবে না, এমন দরদি ভবে, কেউ হবে না আমার মা..গো– ফকির আলমগীরের এই জনপ্রিয় গানটি কমবেশি আমাদের সবারই শোনা। এ গানের কথাগুলোর মত আসলেই কোনভাবে মায়ের ঋণ শোধ করার কোন উপায় কোন সন্তানের জানা নেই। সবার সবচেয়ে নিরাপদ আশ্রয়স্থল হল মায়ের কোল। পরম ভালবাসার আর ভরসার নাম মা। তবে বর্তমান সমাজে কিছু কুলাঙ্গার সে মাকে তার উপযুক্ত মূল্যায়ন তো দূরে থাক, তাকে ফেলে রাথে অনাদরে অবহেলায়। স্টোর রুমের কোনায় নয়তো বৃদ্ধাশ্রমে। কিন্তু সবাই তো আর সমান নন, কেউ কেউ মাকে জীবনের চেয়ে বেশি ভালবাসেন। তেমনি একজন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত ভাইস- চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন। মা রাজিয়া বেগমকে ভাইস- চেয়ারম্যানের জন্য নির্ধারিত চেয়ারে বসিয়ে শ্রদ্ধা,ভালোবাসা ও সম্মান জানিয়ে নিজের আনুষ্ঠানিক কাজ শুরু করেছেন তিনি।

কেন এ কাজ করলেন তিনি?

এ বিষয়ে অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন বলেন, নির্বাচন চলাকালীন সময়ে মনে মনে সংকল্প ছিল যদি নির্বাচিত হতে পারি তাহলে মমতাময়ী মা’কে সর্বপ্রথম নিজের জন্য নির্ধারিত চেয়ারে বসিয়ে এই পবিত্র দায়িত্ব তিনি পালন করব এবং তিনি সেটা করতে পেরেছি বলে নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমি বিশ্বাস করি সৃষ্টিকর্তার পরেই মায়ের স্থান, আমার মা আমার কাছে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ সম্পদ।

তিনি আরো বলেন, আমাকে এই পবিত্র চেয়ারে বসার সুযোগ করে দিয়েছেন সদর উপজেলার সর্বস্তরের জনগণ আমি তাদের কাছে গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, সদর উপজেলাবাসীকে আমি মায়ের মতই ভালোবাসবো। সততা আর নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনে তিনি সকল মহলের দোয়া কামনা করেছেন।

এ সময় মমতাময়ী মা ছেলের জন্য প্রাণভরে দোয়া করেন।

উল্লেখ্য, অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন গত ৩১ শে মার্চ অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এবং শিশু ও প্রতিবন্ধী বান্ধব সমাজকর্মী ।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares