Main Menu

মাদক নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত জনসচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা তথ্য অফিসের ব্যবস্থাপনায় প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত।

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা তথ্য অফিসের ব্যবস্থাপনায় মাদক নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত জনসচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে গতকাল রোজ বৃহস্পতি বার সকাল ১১.০০ঘটিকায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবে এক প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠানে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শুরুতেই খ আ ম রশিদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে বক্তব্য প্রদান করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ সামসুল হক,তিনি বলেন রাষ্ট্রের চতুর্থ উপাদান হচ্ছে জনসমষ্টি,এই জনসমষ্টি যদি মাদকাসক্ত হয়ে যায় তবে জাতি মেধাশূন্য হয়ে যাবে ফলে জাতির পিতার সুখি-সমৃদ্ধ সোনার বাঙ্গলা গড়া সম্ভব হবে না।ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে মাদকাসক্তদের সচেতন করতে হবে।

বিশেষ অতিথি জেলা তথ্য অফিসার, দীপক চন্দ্র দাস বলেন-র্স্মাট সীমান্ত ব্যবস্থাপনা,প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা এবং প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থার মাধ্যমে মাদক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব এই ক্ষেত্রে মাদকদ্রব্যের উৎপাদন ও আমদানি নিষিদ্ধকরণের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সাথে সমন্বিত র্কাযক্রম গ্রহণ করে প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করা প্রয়োজন।মাদকদ্রব্যের অপব্যবহারজনিত সমস্যা আজ বিশ্বব্যাপী। লাভজনক এ ব্যবসাকে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিক চোরাচালানী চক্র গড়ে উঠেছে।বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ প্রজম্মকে এ ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষার জন্য মাদকাসক্তি নিরাময় ও প্রতিরোধ আন্দোলনে আপামর জনসাধারণকে এগিয়ে আসতে হবে ।এর পূর্বশর্ত হিসেবে ধূমপান ও মাদকবিরোধী আন্দোলনকে বেগবান করতে হবে ।সরকারি মহল থেকে শুরু করে গণমাধ্যম,রাজনীতিবিদ,কূটনীতিবিদ,বুদ্ধিজীবী,আইনজীবী,সমাজকর্মী,সমাজবিজ্ঞানী,অর্থনীতিবিদসহ সকল শ্রেণীর মানুষের সক্রিয় অংশগ্রহণপূর্বক মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলে এ বাংলাদেশকে সবার বাস-উপযোগী করে তুলতে হবে।

বিশেষ অতিথি সহকারী পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়,ব্রাহ্মণবাড়িয়া মোঃ বাহাউদ্দিন বলেন- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন।সে প্রেক্ষিতে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অফিস ও জেলা তথ্য অফিস মাদকের বিরুদ্ধে গণসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এছাড়া বিশেষ অতিথি ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী এবং বিশেষ অতিথি মোহাম্মদ আরজু,ইত্তেফাক ও বিটিভি জেলা প্রতিনিধি বক্তব্য প্রদান করেন।উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতি খ.আ.ম রশিদুল ইসলাম,সভাপতি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব,বলেন- মাদকে নির্মূল করতে না পারলে দেশ ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে একটি উন্নত দেশে পরিনত হতে বাধাগ্রস্থ হবে এবং সর্বশেষে অনুষ্ঠনের সমাপ্তি ঘোষণা করেণ।প্রেস রিলিজ






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares