Main Menu

বীর মুক্তিযোদ্ধা উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল

মাদক থেকে রক্ষায় খেলাধুলা যুবকদের একমাত্র পথ ::প্রফেসর ফাহিমা খাতুন

+100%-
উৎসাহ-উদ্দীপনা ও জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুলতানপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাউশি’র সাবেক মহা-পরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন।
টুনামেন্ট পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো আবু মুছা আনছারী সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো জাহাঙ্গীর আলম,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাহেদুল ইসলাম,অতিঃ পুলিশ সুপার সদর সার্কেল রেজাউল কবির,জেলা পরিষদ সদস্য বাবুল মিয়া,ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো আরজু,ঢাকাস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা সমিতির সভাপতি মো আজিজুল হক,চট্রগ্রাম মহানগর চকবাজার থানা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ভূইয়া,বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আরিফ উল্লাহ মুন্সী,মীর মো এয়ার হোসেন,মেহেদী হাসান রিপন।
প্রধান অতিথি বক্তব্যে প্রফেসর ফাহিমা খাতুন বলেন, একজন গৌরান্বিত ক্রীড়াবিদ দেশ ও জাতির ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাতে পারে। তাই শুধু মেধা নয় খেলাধুলায় পারদর্শী হতে হবে।
তিনি বলেন খেলাধুলা বিশ্বের মানচিত্রে  তুলে ধরতে পারে দেশের মান মর্যাদা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষা ও ক্রিড়াকে উচ্চ শিখড়ে নিয়ে বাংলাদেশকে শিক্ষিত ও খেলাধুলায় উন্নত দেশ হিসেবে গড়তে চায়। তিনি আরো বলেন, মাদক থেকে রক্ষায় খেলাধুলা যুবকদের একমাত্র পথ। তিনি সন্তানদের শুধু পড়ালেখায় নয় খেলাধুলায় সন্তানদের আকৃষ্ট করার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান।
উল্লেখ্য বীর মুক্তিযোদ্ধা উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলায় গোল শূন্য ড্র হওয়ায় টাইব্রেকারের মাধ্যমে ফলাফল নির্ধারণ করা হয়। ট্রাইব্রেকারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া একাদশ ৫/৪ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করে উরশিউড়া একাদশকে। খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের হাতে ট্রফি ও প্রাইজমানি তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।হাজার হাজার ক্রীড়ামোদী দর্শক এ খেলা উপভোগ করেন।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares