Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অনুমোদিত নকশা বাদ দিয়ে বহুতল ভবন নির্মাণ

+100%-

jugantorডেস্ক ২৪::  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক ধনাঢ্য চিকিৎসক দম্পতির বিরুদ্ধে বিল্ডিং কোড ও বিধি, অনুমোদিত নকশা না মেনেই ১০তলা বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে পৌর কর্তৃপক্ষ বারবার চিঠি দিলেও ভবন মালিক গুরুত্ব দিচ্ছেন না। এমনকি পৌরসভার একটি পুকুরের ১৩ ফুট থেকে ২০ ফুট জায়গার ভবন তুলে দেয়ারও অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে মাপজোক করে লাল দাগ দেয়াসহ অবৈধ ভবনের অংশ অপসারণের চূড়ান্ত চিঠি দিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া খ্রীস্ট্রিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতালের মালিক শহরের বহুল আলোচিত ধনাঢ্য চিকিৎসক ডা. ডিউক চৌধুরী ও তার স্ত্রী ডা. এঞ্জেলা চৌধুরী শহরের ২৫৯নং পশ্চিম পাইকপাড়া মৌজায় মুন্সেফপাড়া মহল্লায় লাকীবাড়ি এলাকায় সিএস (সাবেক) ৮৭ ও এসএ (হাল) ১২২ নম্বর দাগে ১০তলা বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ করছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ২০১৫ সালের ১২ ফেব্র“য়ারি ভবনের নকশা অনুমোদন দেয়। এ নকশা অনুসারে ভবনের উত্তরে ৬ ফুট ৫ ইঞ্চি, দক্ষিণে ৫ ফুট, পূর্বে ৭ ফুট ৮ ইঞ্চি, পশ্চিমে ১৮ ফুট ৩ ইঞ্চি জায়গা খালি রেখে নির্মাণ কাজ করার কথা। এমনকি ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করার সময় স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর ও সহকারী প্রকৌশলীর উপস্থিতিতে লেআউট দেয়ার কথা। শুরুতেই অভিযোগ উঠে পৌর কাউন্সিলর ও সহকারী প্রকৌশলীর উপস্থিতি ছাড়াই ভবনের লেআউট দেয়া হয়। প্রতিবেশী ও এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠে পৌরসভার অনুমোদিত নকশা অনুসারে ভবনের চারপাশে খালি জায়গা না রেখেই বহুতল এ ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করে। এছাড়া উঁচু ভবন নির্মাণের সময় যে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নিতে হয় তাও নেয়া হয়নি। এ নিয়ে ভবন মালিককে বারবার জানানো হলেও তিনি আমলে নেননি। এ ব্যাপারে প্রতিবেশীদের পক্ষে একেএম আশরাফুল হক নামে এক ব্যবসায়ী গত বছরের ২৯ নভেম্বর পৌরসভার মেয়র বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।

১ ডিসেম্বর পৌরসভার দায়িত্বশীল লোকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেও আশরাফুল হকের করা অভিযোগের সত্যতা পান। ৬ ডিসেম্বর পৌরসভার পক্ষ থেকেও চিঠি দিয়ে আইন অমান্যের অভিযোগ এনে বর্ধিত অংশ অপসারণ করে বিল্ডিং কোড মেনে ভবন নির্মাণের নির্দেশ দিলেও কোনো কাজে আসেনি। চিকিৎসক দম্পতি সব চিঠির আদেশ-নির্দেশ অমান্য করে ভবন নির্মাণ কাজ চালিয়ে যান। এ ব্যাপারে বহুতল বাণিজ্যিক ভবনের মালিক ডা. ডিউক চৌধুরী বলেন, আমরা শুরু থেকেই বিল্ডিং কোড মেনে নির্মাণ কাজ করছি। পৌরসভার লোকজন অন্যায়ভাবে একতরফা মাপজোক করে আমার ভবনে লাল দাগ দিয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares