Main Menu

এই আন্দোলনে শহীদ ওবায়দুর রউফ পলুসহ যারা অবদান রেখেছে তারা অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাটি ও মানুষের নেতা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য, বিশিষ্ট লেখক, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, জেলা আন্দোলনে শহীদ ওবায়দুর রউফ পলুসহ যারা অবদান রেখেছে তারা অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। পলুর আত্মত্যাগকে মূল্যায়ন করে জেলা উন্নয়ন পরিষদ যে অনুষ্ঠান করেছে তা প্রশংসনীয়। তিনি বলেন, আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রাজনীতিতে ১৩ বৎসর অথচ এই সংগঠনের কেউ আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। এবার যেহেতু আপনারা যোগাযোগ করেছেন সেহেতু আমি আপনাদের পাশে রয়েছি এবং থাকবো। তিনি আরও বলেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ঘোষণা করেছিলেন অথচ এই কথা কেউ বলে না। পরে ওবায়দুর রউফ পলুর জীবনের বিনিময়ে আপনাদেরকে এরশাদের নিকট থেকে জেলা আদায় করতে হয়েছে। তিনি জেলা উন্নয়ন পরিষদের সংশ্লিষ্টদের জেলার উন্নয়নে নিবেদিতভাবে কাজ করার আহবান জানিয়ে আগামীদিনে এই সংগঠনকে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
২৭ নভেম্বর বিকেলে সুর সম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে জেলা আন্দোলন ও শহীদ ওবায়দুর রউফ পলু স্মরণে ৩৬তম জেলা আন্দোলন দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
সংগঠনের সভাপতি মোঃ আহসানউল্লাহ্ হাসানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আন্দোলনের অন্যতম নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াহেদ খান লাভলু, সুর সম্রাট দি আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গণের সাধারণ সম্পাদক কবি আবদুল মান্নান সরকার, এড. এম এ করিম, তৎকালীন জেলা আন্দোলন ছাত্র ঐক্যের সদস্য সচিব আব্দুল্লাহ্ আল বাকী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা উন্নয়ন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এডঃ মাহবুবুল আলম খোকন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলম সরকার, সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এডঃ তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, জেলা পরিষদের সদস্য বাবুল মিয়া, এডঃ তাজুল ইসলাম খান প্রমুখ।

আল আমিন শাহীনের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আলী মাউন পিয়াস। বক্তব্য রাখেন সাবেক জিএস ও সংগঠনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আরমান উদ্দিন পলাশ, জহিরুল ইসলাম জহির, এডঃ শেখ জাহাঙ্গীর, সামছুল আলম বাবু, শফিকুল ইসলাম তৌছির, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল হাসান নান্টু, মোঃ আবুল হাসনাত অপু, আলহাজ্ব হাফেজ মোঃ সাফায়েত উল্লাহ্। ইমুনি ইস্টিয়ান, তাসলিমা বেগম, এমিলি, চম্পাকলি, পলি বেগম প্রমুখ।

এর আগে সকালে পলুর কবর জিয়ারত শেষে তার মা জাহানারা বেগমের সাথে সাক্ষাৎ করেন জেলা উন্নয়ন পরিষদের নেতৃবৃন্দ। কর্মসূচী অনুসারে ভোরে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে পলুর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় প্রার্থনা ও দোয়া, কালো ব্যাজ ধারণ এবং কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। আলোচনা সভার শুরুতে ওবায়দুর রউফ পলু স্মরণে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন ও মোনাজাত করা হয়।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares