Main Menu

আশুগঞ্জে ফের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৩০

+100%-

 

প্রতিনিধি : আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার মৈইশার গ্রামে সোমবারের সংঘর্ষের পর  মঙ্গলবার আবারো  দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষ হয়েছে। এতে শিশু, মহিলাসহ উভয়পক্ষের ৩০ জন আহত হয়েছে।

আহতদের জেলা সদর হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।  গুরুতর আহত  পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কজনক। এ সময় পাঁচ-ছয়টি বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যাক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আশুগঞ্জ উপজেলার মৈইশার গ্রামের রশিদ মেম্বার ও নাজির মেম্বারের বাড়ির লোকজনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই বিরোধ চলে আসছিল।

সোমবার দুপুরে দু’পক্ষের লোকদের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে  উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে নেমে পড়ে। এতে কমপক্ষে ২০ জন আহত হন।

এই ঘটনার জের ধরে ঙ্গলবার সকালে উভয় পক্ষের পাঁচ শতাধিক লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দ্বিতীয় দফা সংঘর্ষে নেমে পড়ে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাঠিচার্জ করে দুপুর ১২টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দুই ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মহিলা-শিশুসহ ৩০ জন লোক আহত হন।

গুরুতর আহত কাঞ্চন মিয়া, বাদল মিয়া, আক্তার সিকদার, আবুল বাশার, সিদ্দিকুর রহমান, ফেরদৌস মিয়া, এমরান মিয়া, রহমত আলী, হালিমা বেগম, ফাতেমা বেগম, তাজুল ইসলামকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর ও আশুগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ সময় রশিদ মেম্বার ও নাজির মেম্বারের বাড়ির পাঁচ-ছয়টি ঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করে করা হয়। বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

আশুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares