Main Menu

রিকশাচালক ফিরিয়ে দিলেন অর্ধলাখ টাকা!

+100%-


প্রতিনিধি : সততার এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন রিকশাচালক মো. লিটন মিয়া। যাত্রীর ফেলে যাওয়া অর্ধলাখ টাকাসমেত মানিব্যাগ ফিরিয়ে দিয়ে তিনি এই দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। মঙ্গলবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে এই অভাবনীয় ঘটনার অবতারণা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ইলেকট্রনিক পণ্যে কোম্পানি ওয়ালটনের কর্মকর্তা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের চান্দি গ্রামের বাসিন্দা মো. ইব্রাহিম মিয়া। পণ্য বিক্রির কিস্তির টাকা তুলে রিকশায় করে আখাউড়া পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে ওয়ালটনের শো-রুমে আসেন মঙ্গলবার রাতে। ভাড়া মিটিয়ে রিকশাচালককে বিদেয় করে দেন। এরই মাঝে হঠাৎ দেখেন পকেটে থাকা মানিব্যাগটি নেই। এদিকে ভাড়া নিয়ে রিকশাচালক কিছুদূর গিয়ে আচমকা লক্ষ্য করেন রিকশার সিটে পড়ে আছে একটি মানিব্যাগ। আর ওই ব্যাগে টাকার পরিমাণ বেশি দেখে বুঝতে পারেন এটি ওয়ালটন শো-রুমের কর্মকর্তার। কালবিলম্ব না করে পুনরায় ওই শো-রুমের দিকে ছুটে আসেন। ইতোমধ্যে মানিব্যাগ খুইয়ে মহা চিন্তায় ওয়ালটনের ওই কর্মকর্তার। এরই মধ্যে হাজির হন তাকে বহনকারী রিকশাটিন চালক লিটন মিয়া। টাকা সমেত মানিব্যাগটি ফেরত দেন ইব্রাহিম মিয়াকে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ওই রিকশাচালক লিটন মিয়ার বাড়ি উপজেলা সদরের মসজিদপাড়ায়।
জানতে চাইলে ইব্রাহিম মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, ‘রিকশাচালক মানিব্যাগ নিয়ে ফিরে আসার পর আমি একরকম বোকা বনে যাই।’ প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে রিকশাচালক লিটন মিয়া বলেন, ‘গরীব অইতাম পারি কিন্তু পরের টেহার মইধ্যে আমার লোভ নাই। কারণ পরের টেহার মইধ্যে শান্তি নাই। আমি গরীব অইলেও বৌ-জি লইয়া বালা অই আছি।’






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares