Main Menu

আখাউড়ায় পিতা-পুত্র হত্যার ঘটনায় ২৭জনকে আসামী করে থানায় মামলা(আপডেটেড)

+100%-

প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় মাত্র তিনহাত বাড়ির জায়গা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপরে হামলায় পিতা-পুত্র খুনের ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। বুধবার দিবাগত মধ্যরাতে নিহত গোলাপ খাঁর ছেলে শাহীন খাঁ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় তাজুল ইসলাম মাস্টারকে প্রধান আসামী করে চার মহিলাসহ ২৭ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ১০/১২ জনকে আসামী করা হয়েছে। এদিকে এই জোড়াখুনের ঘটনায় পুলিশ প্রতিপরে মজিবুর রহমান ভূঁইয়া (৮০) ও  স্বপ্না আক্তার (২৫) নামের দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে আসামীরা পরিকল্পিতভাবে সংঘবদ্ধ হয়ে এই খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে। এদিকে পিতা-পুত্রের লাশ বুধবার সন্ধ্যায় গ্রামে পৌঁছালে এক হৃদয় বিধারক দৃশ্যের অবতারণ হয়। শেষবারের মতো এক নজর দেখার জন্য শতশত মানুষ জড়ো হয় নিহত গোলাপ খাঁর বাড়িতে। এবং এই বর্বরোচিত ঘটনার ধিক্কার জানান উপস্থিত জনতা। ওই দিন রাত আটটার দিকে নিহত পিতা-পুত্রের জানাজা শেষে লাশ নিজ গ্রাম ঘোলখারে দাফন করা হয়েছে।আখাউড়া থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা (এসআই) কাঞ্চন কান্তি দাশ মামলা হবার সত্যতা নিশ্চিত করে এই প্রতিবেদককে বলেন,‘ঘটনার পর বুধবার সকালে আটককৃত এক মহিলা ও বৃদ্ধকে গ্রেফতার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলায় তাদের আসামী করা হয়েছে। এই মামলার অন্য আসামীরা এখন গ্রামছাড়া। তবে তাদের ধরতে পুলিশ অভিযানে নেমেছে।’
উল্লেখ্য, উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের ঘোলখার গ্রামে মঙ্গলবার রাতে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে ধরে প্রতিপরে হামলায় গোলাপ খাঁ (৭৫) ও ছেলে ইসমাইল খাঁ (২৫) খুন হন। আহত হন ওই পরিবারের সাতজনসহ অপর ১৩ জন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares