Main Menu

সরাইলে স্ত্রীকে ফেলে পালিয়েছে স্বামী

+100%-

প্রতিনিধি : স্ত্রীকে সরাইলে শ্বশুরবাড়িতে রেখে মোঃ বাদল ভূইঁয়া নামে এক ব্যক্তি পালিয়েছে। রাতে স্বামী নিজের মোবাইল থেকে ফোন করে স্ত্রীকে জানান তাকে ভুলে যেতে। এরপর থেকেই বন্ধ রয়েছে তার মুঠোফোন। আদৌ তার আর কোন সন্ধান মিলছে না। ওদিকে স্ত্রী স্বামীকে খুঁজছেন চারিদিকে। বাদল নরসিংদী জেলার মাধবদী বালুচর এলাকার মোঃ আকবর ভূইঁয়ার ছেলে। তার সাথে কয়েক বছর আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলার সরাইল উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ আরিফাইল গ্রামের মৃত শুক্কুর আলীর মেয়ে নিরুপা বেগমের বিয়ে হয়।
বাদলের স্ত্রী নিরুপা বেগম জানান, গত ২৭ জুন বৃহস্পতিবার তাকে পিতার বাড়িতে রেখে বাদল বিকেলে ফিরে যান। রাত ৯টার দিকে তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন থেকে কল করে স্ত্রী নিরুপাকে জানান তাকে ভুলে যেতে। তাকে খুঁজার চেষ্টা করলে বিপদ হবে। ফোনে কথা বলার পর থেকেই বাদলের ফোনটি বন্দ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে এতে কোন রহস্য আছে।
এদিকে বাদলের বাড়ির লোকজন দাবি করছে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন। তার সন্ধানে স্বজনরা সরাইলে এসে নিরুপা বেগমের পরিবারকে চাপ সৃষ্টি করেছে। বাদলের ভাই মোঃ রোমান ভূইঁয়া জানান, তার বড় ভাই গত বৃহস্পতিবার স্ত্রীকে নিয়ে সরাইলে শ্বশুরবাড়িতে আসেন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ। তার মুঠোফোনও বন্ধ রয়েছে।   
নিরুপার মা সুফিয়া বেগম জানান, তিনি চাতাল কল শ্রমিক। তার সংসারের আর্থিক অস্বচ্ছলতার সুযোগে বাদল তার প্রথম স্ত্রীর কথা গোপন রেখে তার মেয়ে নিরুপাকে বিয়ে করে। এখন সে নিজেই আত্মগোপনে থেকে নিরুপাকে দূর করার চেষ্টা করছে।

ছবি -নিখোঁজ বাদল ভূইঁয়া।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares