Main Menu

সরকার জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে রূপান্তরিত করতে কাজ করে যাচ্ছে.. মোকতাদির চৌধুরী এমপি

+100%-

প্রতিবেদক ॥ পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বিশিষ্ট লেখক, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, দেশের অর্থনৈতির উন্নয়নে প্রবাসীদের অর্জিত অর্থ বিরাট ভূমিকা রাখে। জনবহুল এই দেশের জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে রূপান্তরিত করতে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। এই জন্য বিদেশে বসবাসরত বাংলাদেশী শ্রমিকদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে প্রবাসীদের কল্যাণে মন্ত্রণালয়, ব্যাংক প্রতিষ্ঠা এবং বিভিন্ন দেশে কটুনৈতিক সম্পর্ক জোরদার সহ সরকারী পর্যায়ে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে অল্প খরচে মালয়েশিয়াসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশী শ্রমিক পাঠানোর ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। এতে যেমন সাধারণ মানুষ প্রতারণার হাত থেকে রা পাচ্ছে তেমনি ভাবে অল্প খরচে বিদেশ যাওয়ার মাধ্যমে খুব সহজেই সাবলম্বী হচ্ছে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া পাসপোর্ট অফিস ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হচ্ছে। এ পাসপোর্ট ভবন নির্মান কাজের মধ্যদিয়ে এ অঞ্চলের মানুষের দির্ঘদিনের দাবী পূরণ হবে।
মোকতাদির চৌধুরী এমপি বুধবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মেড্ডা কাল ভৈরব মন্দিরের পার্শ্বে প্রায় ৩৩ শতাংশ প্রস্তাবিত জমির উপর পাসপোর্ট অফিস ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে উপরোক্ত বক্তব্য প্রদান করেন।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক নূর মোহাম্মদ মজুমদার, গণপূর্ত বিভাগ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মোস্তফা কামাল, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ড. আশরাফুল আলম, পাসপোর্ট অফিস ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পরিচালক শাহ মোঃ অলি উল্লাহ্, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেজর জহিরুল হক খান বীরপ্রতীক, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হেলাল উদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম ভূইয়া, কমরেড নজরুল ইসলাম, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী মোঃ আবু জাহিদ, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মাসুম বিল্লাহ্ প্রমুখ। উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন স্থানে ১৯টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস ভবন নির্মান শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রায় ৩ কোটি ৭৩ ল ১৭ হাজার টাকা ব্যয়ে ৩৩ শতাংশ জমির উপর ৩ তলা বিশিষ্ট এ অফিস ভবন নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করবে স্ব-রাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও গর্ণপূর্ত অধিদপ্তর। আগামী ২০১৪ সালের ডিসেম্বর এ অফিস ভবন নির্মান কাজ শেষ হবার কথা রয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares