Main Menu

ভূয়া সাংবাদিকদের অপতৎপরতায় উদ্বেগ ও ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী

+100%-

প্রতিনিধি ॥  রবিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির এক সভায় সাম্প্রতিককালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিক নামধারী ভূয়াদের দৌরাত্ব ব্যাপকভাবে বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। সভায় যাদের বেশিরভাগই নানা অপরাধে জড়িত জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয় মাদক ব্যবসা, সন্ত্রাস,ছিনতাই সহ নানা অপরাধীরা নাম সর্বস্ব বিভিন্ন সংবাদপত্র ও অনলাইন পোর্টাল এর পরিচয় তুলে ধরে নিজেদেরকে সাংবাদিক বলে জাহির করছে। এ শ্রেণীর ভূয়া সাংবাদিকরা নিজের অপরাধ কর্মকে রার পাশাপাশি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত এলাকায় বিচরন করে সরকারি-বেসরকারি অফিসে কর্মচারী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষকে প্রতিনিয়ত হয়রানী, ব্লেকমেইল করে নিজেদের স্বার্থ হাসিল করছে। আর সাংবাদিকতার মতো মহান পেশাকে কলুষিত করছে। অতীত রেকর্ড অনুযায়ী এই ভূয়া সাংবাদিকদের অনেকে মাদক ব্যবসা, চুরি-ছিনতাইয়ের মতো ভয়ানক অপরাধে জড়িত। কিন্তু সাংবাদিক পরিচয়ে এরাই আজ থানা-পুলিশের ধারে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং সমাজের অপরাধের বিস্তার ঘটাচ্ছে। সভায় আরো বলা হয় এই ভূয়া সাংবাদিকদের বেশিরভাগই নিরর ও অর্ধ-শিতি। এরা মোটরসাইকেলসহ  অন্যান্য পরিবহনে সাংবাদিক ষ্টিকার ব্যবহার করে সীমান্ত এলাকায় বিচরন করে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। প্রেসক্লাবের এই সভায় জেলা প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীকে এইসব বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়ে বলা হয় তাতে প্রেসকাব সর্বাত্মক সহযোগীতা করবে। সভায় আরো বলা হয় এসব ভূয়া সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে হয়রানী নির্যাতনের শিকার যে কোন নাগরিক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করলে এতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসকাব ভূয়া সাংবাদিকদের প নেবে না। প্রেসকাব সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রেজার সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক রিয়াজউদ্দিন জামির পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি আল আমীন শাহীন, পীযূষ কান্তি আচার্য, সহকারী সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান লিমন, কোষাধ্য নজরুল ইসলাম শাহজাদা, দপ্তর সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, পাঠাগার সম্পাদক সৈয়দ মোহাম্মদ আকরাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক নিজাম ইসলাম, কার্যকরী সদস্য জাবেদ রহিম বিজন, কার্যকরী সদস্য শিহাব উদ্দিন বিপু প্রমুখ।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares