Main Menu

পরিবারের অভিযোগ হত্যা, পুলিশ বলছে হৃদরোগে মুত্যু!

+100%-

রতিনিধি // ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের ফুলবাড়িয়া গ্রামে মাদক ব্যবসায়ীদের পিটুনিতে শারীরিক প্রতিবন্ধী আলমাছ মিয়া (৫৫) নামে একজনের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় মাদক বিরোধী সভায় যোগ দেওয়ায় তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। গত শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। সদর থানার পুলিশ বলছে, পিটুনিতে নয়, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ দুজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বিকেল তিনটার দিকে ফুলবাড়িয়া এলাকায় মাদক বিরোধী এক সভা চলছিল। ওই সভা চলাকালে খবর আসে মাদক ব্যবসায়ীরা একজনকে আটকে রেখেছে। এ খবরে সভায় উপস্থিত ব্যক্তিরা তাকে ছাড়িয়ে আনতে রওনা হলে পথে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এতে আলমাছ মিয়া সহ কয়েকজন আহত হন। গুরুতর আহত আলমাছ মিয়াকে বিকেল পাঁচটায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আলমাছ মিয়ার ছেলে হাসানউল্ল­াহ (২৬) এবং রবিউল্লাহ (১৮) জানান, ঘটনার সময় ওই এলাকার মাদক ব্যবসায়ী বাদল মিয়া, ইছহাক মিয়া, হেলাল মিয়া এবং মোখলেছ মিয়া তাদের বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। মাদক বিরোধী সভায় যোগ দেওয়া ছাড়াও আলমাছ মিয়া ওইসব মাদক ব্যবসায়ীদের কর্মকান্ডে প্রায়ই বাঁধা দিতেন বলে তারা জানান। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার সহকারী পুলিশ সুপার শহিদ আবু সরোয়ার বলেন, ‘নিহতের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন নেই। চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনার পর মনে হয়েছে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন’। তবে মৃত আলমাছ মিয়ার পরিবারের সদস্যরা আমাদের জানিয়েছেন, তিনি এর আগেও একাধিকবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আলমাছ মিয়াকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার শরীরের কোনো জায়গায় আঘাতের চিহ্ন নেই। কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে সে ব্যাপারে আমি নিশ্চিত নই।’






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares