Main Menu

নবীনগরে জমকালো অনুষ্ঠানে শারদ সম্মাননা প্রদান ২০১৭ অনুষ্ঠিত

+100%-

মিঠু সূত্রধর পলাশ, নবীনগরপ্রতিনিধি:ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভায় এ বছর অনুষ্ঠিত দূর্গাপূজা মন্ডপগুলো থেকে বাছাইপূর্বক শ্রেষ্ঠ পাঁচটি প্রতিমাকে নির্বাচিত করে অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের মাঝে ক্রেষ্ট, সম্মাননাপত্র ও আকর্ষণীয় পুরষ্কার প্রদান করা হয়।
গতকাল ০৪ অক্টোবর বুধবার বিকেলে বহুল প্রত্যাশিত “শারদ সম্মাননা প্রদান ২০১৭ অনুষ্ঠান”টি নবীনগর শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় কালীবাড়িতে এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এছাড়া অংশগ্রহণমূলক পুরষ্কার হিসেবে এবছর পৌরসভায় অনুষ্ঠিত ২৫টি দূর্গাপূজা মন্ডপের সবকটিকেই সম্মাননাপত্র প্রদানসহ পবিত্র ধর্মগ্রন্থ গীতা দান করা হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মান্যবর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম (বার) প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রত্যেকটি পূজা পূজামন্ডপের মাঝে ক্রেষ্ট, সনদ ও আকর্ষণীয় পুরষ্কার প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রধান অতিথিকে ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেন মৌমাছি ভিশনের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান জুয়েল ও সাধারণ সম্পাদক কিবরিয়া সর্দার।
মৌমাছি ভিশনের প্রধান উপদেষ্টা, নবীনগর মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ কান্তি কুমার ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে এ ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার সাপ্তাহিক নবীনগরের কথার উপদেষ্টা সম্পাদক ও শ্রীকাইল কলেজের বাংলা বিভাগের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান, বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক অধ্যাপক শ্যামা প্রসাদ ভট্টাচার্য।
অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) চিত্ত রঞ্জন পাল, নবীনগরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সালেহীন তানভীর গাজী, এটিএন নিউজের পূর্বাঞ্চলীয় ব্যুরো প্রধান পীযূষ কান্তি আচার্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক এডভোকেট শিব শংকর দাস, বাঞ্ছারামপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও স্থানীয় উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিন্টু রঞ্জন সাহা, নবীনগর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অজন্ত কুমার ভদ্র ও কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি কমিটির সভাপতি সীতানাথ সূত্রধর।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- নবীনগর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মৌসুমী আক্তার বারী, নবীনগর বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম জনি ও ভোলাচং দাসপাড়া পূজা কমিটির সভাপতি সত্য রঞ্জন দাস।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা ও মৌমাছি ভিশনের সাংগঠনিক সম্পাদক বিকাশ সূত্রধর।
এছাড়া মঞ্চে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মো. আবু সাঈদ, নবীনগর থানার ওসি আসলাম সিকদার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান (নারী) মোছেনা বেগম ও নবীনগর কেন্দ্রীয় শ্মশানঘাটের সভাপতি সুবীর রঞ্জন সাহা।
এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত চেয়ারম্যানবৃন্দ, সাংবাদিক, শিক্ষক, আইনজীবি, ব্যবসায়ী, সংস্কৃতকর্মীসহ বিভিন্ন পেশার সুধীজনেরা উপস্থিত ছিলেন।
পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন নবীনগরের কথা পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু।
অনুষ্ঠানে ৬ সদস্যের বিচারকদের পর্যবেক্ষণে ভোলাচং পালপাড়া সার্বজনীন মন্দির প্রথম, নবীনগর পঞ্চবটি লোকনাথ আশ্রম মন্দির দ্বিতীয়, ভোলাচং দাসপাড়া সার্বজনীন মন্দির তৃতীয়, নবীনগর পূর্বপাড়া হরিসভা মন্দির চতুর্থ ও নারায়ণপুর নারায়ণ ডাক্তারের বাড়ির মন্দির পঞ্চম স্থান লাভ করায় এসব মন্দিরকে ক্রেষ্ট, সম্মাননা পত্র, গীতাদান ও বিশেষ পুরষ্কার (একটি করে খোল) দেওয়া হয়।
প্রচন্ড রৌদ্র ও গরমকে উপেক্ষা করে কয়েকশ দর্শক প্রায় দু’ঘন্টাব্যাপী এ জমকালো অনুষ্ঠানটি মন্ত্রমুগ্ধের মতো উপভোগ করেন।
প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ পুলিশের সহযোগিতায় ও মিডিয়া পার্টনার নবীনগরের কথার পরিকল্পনায় স্থানীয় সংগঠন “মৌ-মাছি ভিশন” শারদীয় দূর্গোৎসব উপলক্ষে এই প্রথমবারের মতো নবীনগরে এ ধরণের একটি ব্যতিক্রমধর্মী “শারদ সম্মাননা ২০১৭” অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।নবীনগরে জমকালো অনুষ্ঠানে শারদ সম্মাননা প্রদান ২০১৭ অনুষ্ঠিত।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares