Main Menu

প্রত্যেকটি ছেলে মেয়েকে ডিজিটাল দক্ষতা তৈরি করতে কম্পিউটার ল্যাব তৈরি করে দেয়া হবে– ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী আব্দুর জব্বার

+100%-
মিঠু সূত্রধর পলাশ, নবীনগর প্রতিনিধি::প্রত্যেকটি ছেলে মেয়ের মধ্যে ডিজিটাল দক্ষতা তৈরি করতে কম্পিউটার ল্যাব তৈরি করে দেয়া হবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী আব্দুল জব্বার বলেছেন শনিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম মোহিনী কিশোর স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ ও বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ ও  অপটিক্যাল ফাইবার সংযুক্তি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে  ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এছাড়া তিনি আরো বলেন ছেলে মেয়েদেরকে শিক্ষার পাশাপাশি দক্ষ ভাবে গড়ে তুললে গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসে ডলার ইনকাম করতে পারবে আগামী প্রজন্ম। বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসায় তিনি বলেন এই সরকার 13 বছরের যা করেছেন এর আগে এর ধারে কাছে কেউ যেতে পারেনি তাই বারবার আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায় আনতে হবে।
উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উক্ত প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ খলিলুর রহমান,এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ নবীনগর আসনের স্থানীয় সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিম বুলবুল,  বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদার, টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাফিউদ্দিন, নবীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, নবীনগরের এডিশনাল এসপি মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম ,নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ একরামুল ছিদ্দিক,শ্যামনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান মাসুম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল হোসেন আজাদ নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আমিনুর রশীদ। আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ   প্রমুখ।
এর আগে সকালে মন্ত্রীর পিতৃভূমি লক্ষ্মীপুরে গ্রাম ঘুরে দেখেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে সুখ-দুঃখের কথা বলেন এই উপজেলার মানুষের কল্যাণে সব ধরনের সহযোগিতা করবেন বলে সাধারণ মানুষকে আশ্বস্ত করেছেন।  এছাড়া তিনি উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামে অপটিক্যাল ফাইবার সংযুক্তি উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। তারপর সকাল দশটায় হেলিকপ্টারযোগে শ্যামগ্রাম মোহিনী কিশোর স্কুল এন্ড কলেজের অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।