Main Menu

সাংবাদিক মাসুদ সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

+100%-

সরাইল প্রেসক্লাবের সদস্য ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল বিজয় টিভির সরাইল প্রতিনিধি মোহাম্মদ মাসুদ দুর্ঘটনায় গুরতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
গত বৃহস্পতিবার(২৯অক্টোবর) সকাল ১১টায় উপজেলা সদরের অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মোড়ে সিএনজি স্ট্যান্ডের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মোটরসাইকেল যোগে প্রেসক্লাবে যাওয়ার পথে পেছন থেকে একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সা সাংবাদিক মাসুদের মোটর সাইকেলকে ধাক্কা দিলে রাস্তার পাশে তিনি ছিটকে পড়ে। এসময় তিনি বাম পা ও হাতে গুরুতর আঘাত পান।
এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে সার্জারি চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে দুই ঘন্টার অপারেশন শেষে সরাইল হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। বাম পায়ের কনিষ্ঠ আঙ্গুলটি অনেকটা বিচ্ছিন্ন হওয়ার উপক্রম। অপারেশনের মাধ্যমে আঙ্গুল টিকিয়ে রাখার সর্বাত্বক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসকরা।তিনি চিকিৎসক শুভ দেবনাথের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।
সাংবাদিক মোহাম্মদ মাসুদ দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার খবর পেয়ে ছুটে যান সরাইল প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দরা। তার চিকিৎসার ব্যপারে সার্বিক খোঁজ-খবর নেন তারা ।
আহত সাংবাদিক মাসুদ কে দেখতে ছুটে আসেন, সাবেক দুইবারের সাংসদ ও জাতীয় পার্টির নেতা এডঃ জিয়াউল হক মৃধা। সরাইল উপজেলা চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম। আওয়ামীলীগ নেতা এডঃ সৈয়দ তানবীর হোসেন কাউসার।সরাইল টেলিভিশন জার্নালিষ্ট এসোসিয়সনের সাংবাদিক বৃন্দ। বিএনপি নেতা ও আইনজিবি নুরুজ্জামান লস্কর তপু। উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা এমদাদুল হক ছালেক। ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামি। সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম বিজন। যমুনা টিভির জেলা প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম। আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন। ফোকাস বাংলার প্রতিনিধি লোকমান হোসেন প্রমূখ।
তারা সকলেই তার চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। এছাড়াও উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরাও তার চিকিৎসার খোঁজখবর নিতে যায়।
সাংবাদিক মাসুদ চিকিৎসকদের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ডাঃ নোমান মিয়া এবং আবাসিক চিকিৎসক আনাস ইবনে মালেক তার সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখছেন। সাংবাদিক মাসুদ সুস্থতার জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।
তিনি যার পর্যবেক্ষণে রয়েছেন সেই চিকিৎসক শুভ দেবনাথ বলেন, পুনরায় ড্রেসিং করতে গেলে বুঝা যাবে ক্ষতটার কেমন উন্নতি হয়েছে। তারপর আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ নেব।