Main Menu

মেড্ডায় মামলার রায়ে ৫০ বছর পর শতকোটি টাকার সম্পত্তি পেল বাদী

+100%-

মামলার রায়ে প্রায় ৫০ বছর পর দখলদারদের কবল থেকে নিজের জায়গা উদ্ধার করেছে এক স্বত্বাধীকারি। এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে আলোচনা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। টাকার হিসেবে এ সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় শত কোটি টাকা।

রবিবার (০৫ নম্বেবর) শহরের পশ্চিম মেড্ডা এলাকায় মূল মালিককে জায়গা বুঝিয়ে দেন আদালত। এ সময় ওই জায়গায় থাকা বিভিন্ন স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলা হয়। এ সময় এলাকার শত শত লোক জড়ো হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১৯৬৭ সালে বায়না মূলে মালিক দাবি করে তৎকালীন কুমিল্লা জেলা আদালতে ৪৮১ শতক জায়গা বুঝে পাওয়ার আবেদন জানিয়ে মামলা দায়ের করেন আব্দুল মান্নান নামের এক ব্যক্তি। মামলায় বিবাদী করা হয় আবুল হাসেমকে। পরে আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে মামলার বাদী হন তাঁর মেয়ে লায়লা নূর ও আবুল হাসেমের মৃত্যুতে বিবাদী হন তাঁর ছেলে মো. অহিদুজ্জামান। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুগ্ম জজ আদালত-২ এর নির্দেশে রবিবার জায়গাটি বুঝে পান লায়লা নূরের পরিবর্তে বাদী হওয়া তাঁর ভাইয়ের বৌ আছিয়া রহমান।

এ প্রসঙ্গে আছিয়া রহমানের ছেলে মো. আসাদুর রহমান জানান, ৫০ বছর ধরে জায়গাটি আবুল হাসেমের পরিবারের লোকজনের দখলে ছিল। আদালতের রায়ে আমরা জায়গাটি বুঝে পেয়েছি। আদালত আমাদেরকে জায়গা বুঝিয়ে দিয়েছেন।

মো. অহিদুজ্জামানের ছেলে মো. খালেকুজ্জামান অনিক বলেন, ‘আদালতের রায়ে ৪৮১ শতকের বাইরে ৯৫ শত জায়গা তারাও বুঝে পেয়েছেন। আদালতের রায়ের প্রতি আমরা সম্মান জানাই।’ তবে পরবর্তীতে এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নিবেন কি-না সে বিষয়ে তিনি কিছু বলেন নি।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares