Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় নাগরিক অংশগ্রহণে মানববন্ধন

+100%-

৩১ অক্টোবর ২০১৭, ব্রাহ্মণবাড়িয়া: সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর তরুণ স্বেচ্ছাসেবক ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস গ্রুপের উদ্যোগে পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় নাগরিক অংশগ্রহণে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

ব্রাক্ষণবাড়িয়া সনাকের সভাপতি জেসমিন খানমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জলবায়ু বিষয়ক উপকমিটির আহবায়ক সনাক সদস্য আব্দুন নুর। মানববন্ধনের ধারণাপত্র পাঠ করেন ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্য সুফিয়া আক্তার। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন সনাক সহ-সভাপতি প্রকৌশলী মো: রফিকুল ইসলাম, স্বজন সমন্বয়ক ফজিলাতুন্নাহার, ইয়েস দলনেতা মো: তারিকুল ইসলাম, ইয়েস সহ-দলনেতা মহিমা আক্তার এবং স্বদেশীর নির্বাহী পরিচালক আজিজুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ইয়েস প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সমন্বয়ক মো: আল আমিন ভুঁইয়া।

অনুষ্ঠানে বক্তারা পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাবসমূহ তুলে ধরেন এবং এই পরিবর্তন মোকাবেলায় সকল নাগরিককে সচেতন ভূমিকা পালনের আহবান জানান। তারা বলেন, উন্নয়নের লক্ষ্যে শিল্পায়ন ও অপরিকল্পিত বৃক্ষ নিধনের কারণে কার্বন নি:সরণ বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং বৈশি^ক উষ্ণতা ক্রমান্বয়ে বেড়ে চলেছে। চলমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে এবং জলবায়ু পরিবর্তন রোধ করা সম্ভব না হলে আগামী শতাব্দীর মধ্যে বাংলাদেশের ১/৩ অংশ সাগরে বিলীন হয়ে যাবে এবং এতে দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় ২ কোটি লোক বাস্তুচ্যুত হতে পারে। বক্তারা ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত খাল এবং শহর ঘেরা তিতাস নদী সহ বিভিন্ন রাস্তাঘাটে বর্জ্য অব্যবস্থাপনার কারণে সৃষ্ট স্বাস্থ্য ঝুঁকি, শহরের জলাবদ্ধতা, শব্দ দূষণ, বায়ু দূষণ নিরসনে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট দাবী জানান। বক্তারা আশা করেন যে, প্রত্যেক নাগরিক নিজ নিজ অবস্থান থেকে সচেতন হলে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা করা সম্ভব হবে। প্রেস রিলিজ






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares