Main Menu

হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত সংস্কৃতিকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন চলবে

কবি তনন হত্যার প্রতিবাদে তিন সংগঠনের যৌথ শোকসভা অনুষ্ঠিত

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তরুণ কবি ও সংস্কৃতি কর্মী সৈয়দ মোনাব্বির আহমেদ তনন হত্যার ১১ দিনেও হত্যাকারীদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এ নিয়ে পরিবার ও জেলার সংস্কৃতিকর্মীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে শাস্তি প্রদানের দাবীতে ধারাবাহিক কর্মসূচী পালন করছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন। এবার কবির কলম, ঝিলমিল একাডেমি ও সোনালী সকাল সংগঠনের ব্যানারে কবি মোনাব্বিরের স্মরণে এক যৌথ শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টায় স্থানীয় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা মঞ্চে এই শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা খেলাঘর আসরের সাধারণ সম্পাদক নীহার রঞ্জন সরকার এর সভাপতিত্বে ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি কবি ফাহিম মুনতাসির এর সঞ্চালনায় শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়নের আহবায়ক মোঃ মনির হোসেন। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চেতনায় স্বদেশ গণগ্রন্থাগারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, কবি ও কথা সাহিত্যিক আমির হোসেন, উদীচী জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌসুর রহমান, নদী বিষয়ক সংগঠন নোঙর এর সভাপতি শামীম আহমেদ, তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের সহকারি পরিচালক আবৃত্তিশিল্পী বাছির দুলাল, জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি মোঃ সাইদুর রহমান জুয়েল।

সভায় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নোঙর এর প্রচার সম্পাদক সোহেল খান, কবি ও গীতিকার গাজী তানভীর আহমেদ, কবির কলমের সভাপতি সুমন সাহা, ঝিলমিল শিশু কিশোর সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মনিরুল ইসলাম শ্রাবণ, বিক্ষুব্ধ সংস্কৃতি সমাজের যুগ্ম-আহবায়ক এরফানুল হক সুজন, স্বপ্নের যাত্রা মানব কল্যাণ সংগঠনের সভাপতি সায়মন ওবায়েদ শাকিল, কবির কলমের সাংগঠনিক সম্পাদক আসিফ খান, সোনালী সকাল সংগঠনের সদস্য মো. জিহাদ। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কবির কলমের সাধারণ সম্পাদক কবি হুমায়ুন কবির। এছাড়াও সংহতি প্রকাশ করে সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রবর্তক আবৃত্তি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সোহেল আহাদ, কবি ও গীতিকার নাগর হান্নান, সাংবাদিক খাইরুল কবির, সৃজন সাহিত্য সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল মোর্শেদ মোয়াজ, কবির কলমের যুগ্ম সম্পাদক কবি মো. শরীফ সরকার, কবি শরীফ উদ্দিন, দপ্তর সম্পাদক ফাহিম, নবপত্রিকার প্রকাশক সম্পাদক প্রসন্ন দাস, সোনালী সকাল সংগঠনের সাহিত্য সম্পাদক নাইম হোসেন তাহরিম, তথ্য সম্পাদক বিশ্বজিত দাস প্রমুখ।

শোক সভায় কবি তননকে উৎসর্গ করে বৃন্দ কবিতা আবৃত্তি করেন তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের আবৃত্তি শিল্পীবৃন্দ। সভায় বক্তগণ বলেন, কবি মোনাব্বির তনন হত্যার প্রতিবাদে হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া তথা সারা বাংলাদেশের শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতিসেবীরা আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। গত ১০ দিনেও কোন আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বক্তাগণ ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংস্কৃতিকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন চলছে এবং চলবে। প্রয়োজনে আরো কঠিন কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে বলে তারা অঙ্গিকারবদ্ধ হোন।

উল্লেখ্য, গত ৯ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের আলিয়ারা গ্রামে সরকারি খালে বাঁধ দিয়ে পানি নিস্কাশনবন্ধের প্রতিবাদ করায় পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় তরুণ কবি সৈয়দ মুনাব্বির আহমেদ তননকে। নিহত মুনাব্বির আহমেদ আলিয়ারা গ্রামের শিব্বির আহমেদের ছেলে।প্রেস বিজ্ঞপ্তি