Main Menu

Thursday, October 3rd, 2019

 

কসবায় বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান মিয়া ডাক্তারের ইন্তেকাল ॥ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন

কসবা উপজেলার বাদৈর ইউনিয়নের চন্দ্রপুর পূর্বপাড়ার বিশিষ্ট সমাজসেবক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান মিয়া (ডাক্তার) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না—রাজেউন)। গত বুধবার দিবাগত রাত ৯টায় নিজ বাসভবনে তিনি হৃদযন্ত্রের ক্রীয়া বন্ধ হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, দুই মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে যান। গতকাল বৃহস্পতিবার বাদ আছর চন্দ্রপুর স্কুল মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর লাশ দাফন করা হয়। নামাজে জানাযার পূর্বে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের নেতৃত্বে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। নামাজে জানাযায় অংশবিস্তারিত


নাসিরনগরে অভিযানের পরই কমে গেলো পেঁয়াজের দাম,৫ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক:: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় পাঁচ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। গত কয়েকদিন ধরে নাসিরনগর বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ১০০ থেকে ১২০ টাকা দরে বিক্রি হলেও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের পরই পাল্টে গেছে চিত্র। ২ অক্টোবর বুধবার দুপুরে নাসিরনগর বাজারে এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী মেজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ আজগর আলী। ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের উপস্থিতি টের পেয়েই দোকানদাররা ১২০ টাকার পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৬৫ টাকা বিক্রি করতে থাকে। তবে এ সময় কিছিু অসাধু দোকান মালিককে অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় ৫ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেবিস্তারিত


নাসিরনগরে মাদক ব্যবসায়ীসহ আট ৬

নিজস্ব প্রতিবেদক:: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৬০ পিস ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে নাসিরনগর থানা পুলিশ। অপরদিকে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা ভুক্ত আরো পাঁচ আসামীকে আটক করা হয়। নাসিরনগর থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা সদর ইউনিয়নের ডিজিটাল হাসপাতালের পিছনে দত্ত বাড়ির পুকুর পাড় থেকে ষাট পিস ইয়াবাসহ জোবায়ের(২৭) নামে এক যুবককে আটক করা হয়। জোবায়ের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা থানার খাড়েরা গ্রামের মৃত আবুল কালাম আজাদের ছেলে। অপর আসামী জমির মিয়া(৩৫) পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। জমির মিয়া নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক গ্রামেরবিস্তারিত


নবীনগর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের অপসারণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ

নবীনগর প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ এনে অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার বেলা ১২টার দিকে ‘হঠাও প্রিন্সিপাল, বাঁচাও কলেজ’ শ্লোগানে কলেজের সম্মিলিত সাধারণ ছাত্র/ছাত্রী পরিষদ ব্যানারে এই বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। নবীনগর সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে কলেজের একাদশ, দ্বাদশ ও স্নাতকসহ বিভিন্ন শ্রেণির শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে বিভিন্ন শ্লোগানে তারা কলেজ চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল করে। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন কলেজে যোগদান করার পর থেকেই বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন। অধ্যক্ষের গাফিলতি, দায়িত্বহীনতা ও নানা অনিয়মের কারণে গত দুই বছর ধরেবিস্তারিত


নবীনগরে পৃথকস্থানে দুইজনের মৃত্যু

নবীনগর প্রতিনিধিঃ  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে বুধবার সকালে পানিতে ডুবে ও বিদ্যুপৃষ্টে পৃথকস্থানে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। জিনপুর ইউনিয়নের মেরকুটা গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে মিনহাজুল ইসলাম (২) পানিতে ডুবে ও একই ইউনিয়নের হুরুয়া গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম (৪৮) বিদ্যুপৃষ্টে মারা গেছে। জানা গেছে, শিশু মিনহাজুল ইসলাম বাড়ি প¦াশের পুকুর পাড় খেলা করা সময় পানিতে পড়ে তলিয়ে যায়। রফিকুল ইসলাম বাড়ির গরু খামারে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়। আশংকাজনক অবস্থান দুইজনকে নবীনগর সদর হাসপাতালে নিলে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।


নোয়াখালীতে গান্ধী:ছাগল চুরির আড়ালে এক রক্তাক্ত ইতিহাস

ব্রিটিশ শাসন থেকে ভারত স্বাধীন হওয়ার এক বছর আগে, ১৯৪৬ সালের অক্টোবর-নভেম্বরে নোয়াখালীতে হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা হয়, যা নোয়াখালী দাঙ্গা নামেও পরিচিত। এই দাঙ্গার ঘটনাটি ভারত-পাকিস্তান বিভাজনের এক মর্মান্তিক এক অধ্যায়। এই ঘটনার পর ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা মোহন দাস করমচাঁদ গান্ধী ওই অঞ্চলে গিয়ে প্রায় তিন মাস কাটান। পুরো অঞ্চলটি বেশিরভাগ পায়ে হেঁটে ঘুরে বেড়ান তিনি। হিন্দু-মুসলমান সমাজের নানা অংশের সাথে কথা বলেন এবং বিভিন্ন জনসভায় গিয়ে ভাষণ দেন। এই হানাহানি বন্ধ করে দুর্বলকে রক্ষা করাই ছিল তার একমাত্র লক্ষ্য। নোয়াখালীতে সফরকালে মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে একটা ঘটনা ঘটে। তিনি ছাগলেরবিস্তারিত


দলিল রেজিস্ট্রিতে হায়েস্ট ঘুষের অঙ্ক আখাউড়ায়

হেবা ঘোষণা শ্রেণির একটি দলিলের সরকারি ফি ৬৮০ টাকা। কিন্তু ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সাবরেজিস্ট্রি অফিস এই দলিল বাবদ আদায় করছে প্রায় ১০ হাজার টাকা। এই টাকা যাচ্ছে সাবরেজিস্টার আর অফিস স্টাফদের পকেটে। বণ্টননামা দলিলের ক্ষেত্রেও সর্বোচ্চ হাজার তিনেক টাকা সরকারি ফির স্থলে ইচ্ছামতো মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করা হচ্ছে। সেটি ৫০ হাজার টাকা পর্যন্তও হয়ে থাকে। সাবকাবলা দলিলেও ঘুষের রেট চড়া। সবমিলিয়ে এই সাবরেজিস্ট্রি অফিসে যে হারে ঘুষ নেয়া হচ্ছে তা সারা দেশের মধ্যে হায়েস্ট বলে মনে করেন এখানকার দলিল লেখকরা। সাবরেজিস্টার তাজনোভা জাহাত অফিস করেন ৩ দিন। খোঁজ নিয়ে জানাবিস্তারিত