Main Menu

আখাউড়ার একই পরিবারের সাতজন মাদকবিক্রেতার আত্মসমর্পণ

+100%-

মাদক ব্যবসার অভিযোগ থাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার একই পরিবারের সাতজন পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন।

এর মধ্যে তিন ভাইয়ের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি করে মাদকের মামলা রয়েছে। বাকিদের বিরুদ্ধে মামলা না থাকলেও মাদক ব্যবসার কাজে তারা সহযোগিতা করতেন।

রোববার দুপুরে আখাউড়া থানা পুলিশের মাধ্যমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপারের কাছে তারা আত্মসমর্পণ করেন।

আত্মসমর্পণকারীরা হলো- উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের উত্তর নোয়ামোড়া গ্রামের তিন ভাই বাছির মিয়া, ইবন মিয়া, নাসির মিয়া, বাছির মিয়ার স্ত্রী হাসেনা বেগম, বাছির মিয়ার ভাই জীবন মিয়ার স্ত্রী সাহেনা বেগম, ইবন মিয়ার স্ত্রী নয়ন তারা ও নাছির মিয়ার মেয়ে কবিতা।

আখাউড়া থানা পুলিশ সূত্র জানায়, বাছির মিয়ার বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলায় ১৭টি, ইবন মিয়ার বিরুদ্ধে ৯টি ও নাছির মিয়ার বিরুদ্ধে ১০টি পরোয়ানা রয়েছে। ওই তিন ভাই একটি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি। আরেক ভাই জীবন মিয়া বর্তমানে জেল হাজতে আছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মনিয়ন্দ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কয়েক নেতার মাধ্যমে আজ সকালে নাছির মিয়া বাদে বাকি ছয়জন আখাউড়া থানা পুলিশের কাছে এসে মাদক ব্যবসা না করার অঙ্গীকার করেন।

এদিকে দুপুরে ওই ছয়জনকে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আসা হয়। এ সময় ডিবি পুলিশ নাছির মিয়াকে হাজির করে। পরিবারের সাত সদস্যকে বাছির মিয়ার বাবা ইদ্রিস মিয়া পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের হাতে তুলেন দেন। এ সময় আত্মসমর্পণকারীরা আর কখনো মাদক ব্যবসা করবেন না বলে অঙ্গীকার করেন।

পুলিশ সুপার ছাড়াও জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার অফিসার ইনচার্জ মো. ইমতিয়াজ আহম্মেদ, জেলা ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া, আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোশারফ হোসেন, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. আরিফুল আমিন, মনিয়ন্দ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান আলমগীর ভূঁইয়া, যুবলীগ নেতা বাদল দাস, ছাত্রলীগ নেতা মো. শাহীন মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares