Main Menu

ধারা ভাঙতে আসছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’

+100%-

ঢাকাই ছবিতে বরাবরই খুন হওয়ার পর স্পটে দেখা মেলে পুলিশকে! প্রচলিত এই ধারণাকে পাল্টে দিতেই একদল চৌকস পুলিশের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে সিনেমা ‘ঢাকা অ্যাটাক’। ৬ অক্টোবর দেশজুড়ে মুক্তি পাচ্ছে আলোচিত এই ছবিটি। আপাতত ১২৫টি হলে মুক্তি চূড়ান্ত হয়েছে।

ছবি মুক্তির আগে ভিন্ন ভিন্ন প্রচার কৌশলে ব্যস্ত নির্মাতা দীপংকর দিপন ও তাঁর সঙ্গীরাও। দীপংকর জানালেন, “ঢাকা অ্যাটাক নিয়ে দারুণ ব্যস্ত এখন সবাই। এরই মধ্যে আমাদের ছবিটি দেশের ১২৫টি সিনেমা হলে মুক্তি চূড়ান্ত করেছে। আগামি দুই দিনে হয়তো আরও কিছু হল বাড়তে পারে।”

নির্মাতা জানান, ঢাকার প্রায় সবগুলো সিনেমা হলেই ছবিটি চলবে। এখন পর্যন্ত রাজধানীতে কোনও গুরুত্বপূর্ণ সিনেমা হল বাদ যায়নি।

এরই মধ্যে দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে আরেফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি অভিনীত ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’। প্রথম থেকেই প্রচারে নতুন নতুন কৌশল অবলম্বন করছেন নির্মাতা। এরই মধ্যে বলিউড স্টাইলে ছবির টিজার, পোস্টার আর মোশন পোস্টারও রিলিজ করেছেন তারা, যা বাংলা সিনেমায় দেখা যায়নি।

চলচ্চিত্রটির মূল ভাবনা ও কাহিনী ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি সানী সানোয়ারের। ছবিটি নির্মাণে সার্বিক তত্ত্বাবধায়নও করছেন তিনি। তাঁর কথায়, “বাংলাদেশের প্রথম পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমা এটি। সকল শ্রেণির দর্শকের মন জয় করবে বলে আমাদের বিশ্বাস। দেশীয় চলচ্চিত্রে আধুনকিতার ছোঁয়া, শতভাগ মৌলিক গল্প, সর্বোচ্চ সংখ্যক তারকা অভিনেতা-অভিনেত্রীদের উপস্থিতি, অসম্ভব সুন্দর কিছু গান, বিশাল আয়োজন-সহ আরও নানা বিষয় যুক্ত করার মধ্য দিয়ে সিনেমাটি দর্শকদের উপভোগ্য করার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা নেওয়া হয়েছে। আমরা আশা করি সিনেমাটিতে দর্শকদের আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটবে।”

বাংলাদেশের প্রথম পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলারধর্মী ছবিতে মূল চরিত্রে আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি ছাড়াও অভিনয় করেছেন রনায়ক আলমগীর, হাসান ইমাম, এবিএম মুসা এবং কাজি নওশাবা আহমেদ।

 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares