Main Menu

আর কোন অজুহাত নয়, এবার সাহস আর আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলুন- আমিও পারব

+100%-

#অজুহাত ১ : ‘আমি পড়াশোনার সুযোগ পাইনি’
:: ফোর্ড মোটর এর মালিক হেনরি ফোর্ড ঠিকভাবে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারেননি তবুও তিনি বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ট গাড়ি কোম্পানির মালিক হতে পেরেছিলেন।
::শচীন টেন্ডুলকার দশম শ্রেনীতে পরীক্ষায় ফেল করেছিলেন।
::বিল গেটস তার ইউনিভার্সিটির পড়াশোনা শেষ করতে পারেন নি।

#অজুহাত ২ : ‘আমার বাবা নেই’
:: এ.আর রহমানের বাবা ছোট বেলাতেই মারা গিয়েছিলেন। তবুও তিনি আজ বিশ্বের উল্লেখ যোগ্য সঙ্গীতকার এবং ভারতের শ্রেষ্ট সঙ্গীতকারে পরিণত হয়েছেন।

#অজুহাত ৩ : ‘আমরা অনেক গরীব’
:: আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিঙ্কন মুচির দোকানে কাজ করতেন।
:: আবুল কালাম (ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি) ছিলেন গরীব ঘরের সন্তান। তাঁর বাবা ছিলেন একজন মাঝি। তবুও তিনি একজন বিখ্যাত বিজ্ঞানী হতেপেরেছিলেন।
::২৫ বছর বয়সে ভারতের রজনিকান্ত ছিলেন একজন বাস কন্ডাকটর।

#অজুহাত ৪ : ‘আমার কিছু নেই, আমি কিভাবে উন্নতি করবো?’
:: নিকোলাস ক্রেজ ‘ফেয়ারফ্যাক্স’ থিয়েটারে পপকর্ন বিক্রি করতো।
:: আপনার প্রিয় গায়ক বন জোভি প্রথম জীবনে বাড়িঘর সাজানোর ডেকোরেটরের কাজ করতো।
:: আমার প্রিয় অভিনেতা ‘ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো’ খ্যাত জনি ডেপ ছোটোবেলায় রাস্তায় রাস্তায় বল পয়েন্ট কলম বিক্রি করতো!
:: বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খান মুম্বাইতে এসে বেঞ্চে ঘুমাতেন,প্রতিদিন কাজ খোজার জন্য বের হওয়ার আগে বন্ধুর কাছে ২০ টাকা করে ধার নিতেন।
:: বার্সান ভাই পাটেল নিরমা কোম্পানির মালিক। তিনি অর্ধেক জীবন সাইকেলে করে নিরমা বিক্রি করে কাটিয়ে দেন। আর এখন……..

#অজুহাত ৫ : ‘আমি গরিব ঘরের সন্তান’
::বিস্ময়কর ফুটবলার মেসি একসময় নিজের ফুটবলের ট্রেনিং এর খরচ যোগাতে চা দোকানে কাজ করতেন।
:: আন্ড্রু কার্নেগী প্রচুর গরীব ঘরের ছেলে ছিলেন। তিনি একটি খামারে কাজ করতেন। পরে তিনি আমেরিকার অন্যতম শ্রেষ্ঠ ধনী ব্যক্তি হয়েছিলেন।

#অজুহাত ৬ : ‘ সামান্য একটা চাকরি করে কি করতে পারি’
:: হলিউড অভিনেতা ব্রাড পিট প্রথম জীবনে ‘এল পল্লো লোসো’ নামের এক রেস্টুরেন্টে মোরগের ড্রেস পরে হোটেল বয় এর কাজ করতো।

#অজুহাত ৭ : ‘আমি পড়াশোনায় ভালো না’
:: থমাস এলভা এডিসনকে ছোটবেলায় সবাই বোকা, গাধা বলে রাগাত। তিনি পড়াশোনায় ভালো ছিলেন না। তবু তিনি একজন বিখ্যাত বিজ্ঞানী হতে পেরেছিলেন।

জীবন থেমে থাকে না, আপনি না চাইলেও সময় গড়াবেই। ভবিষ্যতকে আপনি মোকাবেলা করতেই হবে। তাই অহেতুক আর কোন অজুহাত নয়, এবার সময় বিশ্বকে জয় করার। সাহস নিয়ে বলুন, উচ্চস্বরে বলুন, নিজেকে বলুন, “আমি পারবোই”






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares