Main Menu

ঢাকা অবরুদ্ধই, খালেদার বাড়িতে ব্রিটিশ হাই কমিশনার

+100%-

ডেস্ক ২৪ :সোমবারও ঢাকায় পুলিশি নিরাপত্তায় কোনও ঢিলেমি দেখা যায়নি। শহরের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলিতে এ দিন টহল দিয়েছে যৌথবাহিনী। নির্বাচন প্রতিহত করার প্রতিবাদে রবিবার ঢাকা অভিযানের ডাক দিয়েছিলেন বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়া। অভিযান রুখতে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয় বিক্ষোভকারীদের। মৃত্যু হয় ২ জনের।
এ দিন ঢাকায় প্রবেশের মূল জায়গাগুলিতে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করা হয়। উত্তরা, যাত্রাবাড়ি, গাবতোলি ও কেরানিগঞ্জে নিরাপত্তার কারণে মাছিও গলতে পারেনি।
খালেদা জিয়ার বাড়ির সামনে পুলিশি প্রহরা।
খালেদা জিয়ার গুলশনের বাড়ির সামনে মোতায়েন করা হয় আরও পুলিশকর্মী। অশান্তির আশঙ্কায় প্রস্তুত ছিল জলকামানও। গত শুক্রবারের পর এ দিন এই প্রথম খালেদার সঙ্গে দেখা করতে যান তাঁর উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন আহমেদ এবং দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসের মবিন চৌধুরী। বিকেল ৫টা নাগাদ খালেদার সঙ্গে দেখা করেন ব্রিটিশ হাই কমিশনার রবার্ট গিবসন।
পুরনো ঢাকায় পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে আহত হন এক ব্যবসায়ী। তল্লাশি চালিয়ে মহম্মদপুর ও রাজশাহি থেকে প্রচুর বিস্ফোরক উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় ৩ জনকে। চাঁদপুরে ২০টি গাড়ি জ্বালিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। রংপুরে বিএনপি-জামাত সংঘর্ষে আহত হন ১৫ জন।
ঢাকায় আওয়ামি লিগের মিছিল।
এ দিন ভারতের বিদেশমন্ত্রী সলমন খুরশিদ জানান, ‘বন্ধু’ বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে নাক গলাবে না ভারত। বরং ভারত এই বিষয়ে আমেরিকার হস্তক্ষেপ চায়। অন্য দিকে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “বিরোধীরা আন্দোলন করুক তাতে ক্ষতি নেই। কিন্তু তাদের আন্দোলনের কারণে মানুষের মৃত্যু কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।”






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares