Main Menu

ডেসটিনিতে বিনিয়োগের জের নিজ অস্ত্রে কুমিল্লায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

+100%-

ডেসটিনিতে বিনিয়োগের জের ধরে দাম্পত্য কলহ বাধে, পরে কুমিল্লা মহানগরীর জাঙ্গালিয়ায় বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের নায়েক তানভীর হোসেন(৩৫) নিজের ব্যবহারিত অস্ত্রে গুলিবিদ্ধ হয়ে গতকাল বুধবার মৃত্যুবরণ করে ।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, পারিবারিক কলহের বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ জেনে যাওয়ায় লজ্জায় তানভীর নিজের গুলিতে আত্মহত্যা করতে পারে।
পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সুত্রে আরো জানা যায়, চাঁদপুর কচুয়া উপজেলার সরাইলকান্দি গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে তানভীর হোসেন ২০০৩ সালের ১৩ জুলাই পুলিশের কনস্টেবল হিসেবে যোগদান করে। ৬ বছর পূর্বে কুমিল্লা দাউদকান্দির কেতুন্দী গ্রামের সৈয়দ আলী ভুইঁয়ার মেয়ে আছিয়া খাতুনকে বিয়ে করে তানভীর। তাদের আরাফ (৫) ও আতাহার (২) নামের দুই ছেলে সন্তান রয়েছে। তাকে না জানিয়ে স্ত্রী ডেসটিনিতে টাকা বিনিয়োগ করায় তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে মনোমালিন্য চলছিলো। এনিয়ে তানভীর পরিবারের সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। মঙ্গলবার দুপুরে তানভীরের স্ত্রী আছিয়া খাতুন কুমিল্লা পুলিশ লাইনে এসে পারিবারিক কলহের কথা জানায়। পরে আর আই নুরুল ইসলাম বিকেল ৪টায় তানভীরকে পুলিশ লাইনে ডেকে নেয়। সন্ধ্যার পর এ বিষয়ে পুলিশ লাইনে বৈঠক বসে।
বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে দায়িত্বরত পুলিশ কনস্টেবল কামরুল ও ইমনের সাথে কথা বলে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় তানভীর তার স্ত্রী আছিয়া ও দুই ছেলেকে নিয়ে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কর্মস্থলে আসে। রাতে স্ত্রী ছেলেদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। বুধবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে হঠাৎ গুলির বিকট আওয়াজ শুনা যায়। এ সময় তানভীরের স্ত্রী চিৎকার দিয়ে কক্ষ থেকে বের হয়ে বলে আমার স্বামী গুলিবিদ্ধ হয়েছে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতা নিয়ে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতালে সাড়ে ৯টায় তানভীরের মৃত্যু হয়। এ বিষয়ে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছে সহকর্মী কনস্টেবল কামরুল ইসলাম।
আরআই নুরুল ইসলাম পুলিশ লাইনে তানভীর ও তার স্ত্রীর মনোমালিন্যের বিষয়ে বৈঠক হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, দাম্পত্য কলহ থেকে নিজ অস্ত্রে তানভীর আত্মহত্যা করতে পারে।
কুমিল্লার এএসপি (হেড কোয়ার্টার) সাহাবুদ্দীন জানান, তানভীরের স্ত্রী তার অমতে ডেসটিনিতে কিছু টাকা বিনিয়োগ করেছিল। এ টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ সৃষ্টি হয়। ১০ এপ্রিল সন্ধ্যায় মনোমালিন্য সমাধানের জন্য আমরা তাদের সাথে কথা বলেছিলাম।{jcomments on}






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares