Main Menu

বিদেশের ব্যাংকগুলিতে সবচেয়ে বেশি কালো টাকা রয়েছে ভারতীয়দের

+100%-

বিদেশি ব্যাংকে গচ্ছিত কালো টাকা নিয়ে এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য পেশ করল সেন্ট্রাল ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (সিবিআই)। সোমবার সিবিআই জানিয়েছে, বিদেশের ব্যাংকগুলিতে সব থেকে বেশি কালো টাকা রয়েছে ভারতীয়দের। বিদেশি ব্যাংকে ভারতীয়দের কালো টাকার পরিমাণ প্রায় ৫০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (২৪.৫ লক্ষ কোটি টাকা)।
মরিশাস, সুইজারল্যান্ড, ব্রিটেন, লিচেনস্টেন-সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ব্যাংকে হিসাব বহির্ভূত টাকা রয়েছে ভারতীয়দের। এদিন সিবিআই ডিরেক্টর অম্বর প্রতাপ সিং বলেন, “বিভিন্ন বিদেশি ব্যাংকে ভারতীয়দের গচ্ছিত কালো টাকার পরিমাণ প্রায় ৫০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। সুইস ব্যাংকে কালো টাকার পরিমাণেও ভারতীয়দের সংখ্যাই সব থেকে বেশি।” বিদেশি ব্যাংকে বেআইনি লেনদেনগুলি নিয়ে বিস্তারিত তথ্য যোগাড় করাটা কিছুটা সময় সাপেক্ষ। কারণ বেশ কিছু আইনি জটিলতা রয়েছে। সব থেকে কম দুর্নীতিগ্রস্থ দেশগুলির মধ্যে রয়েছে সুইজারল্যান্ড। এছাড়া পঞ্চম স্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর ও সুইজারল্যান্ড সপ্তম স্থানে রয়েছে বলেও জানান সিবিআই ডিরেক্টর।
এদিন সিবিআই জানিয়েছে, বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, সীমান্ত দিয়ে পাচার হওয়া বেআইনি অর্থের পরিমাণ ১ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। যার মধ্যে উন্নয়নশীল দেশগুলোয় সরকারির আমলাদের ঘুষ নেওয়া টাকার পরিমাণ ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত ১৫ বছরে এই বিপুল পরিমাণ অবৈধ অর্থের মাত্র ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার উদ্ধার করা গিয়েছে। বিদেশি ব্যাংকে গচ্ছিত কালো টাকা দেশে ফেরাতে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছে বিরোধী দলগুলো। দুর্নীতি নিয়ে দেশজুড়ে আন্দোলনে নেমেছেন আন্না হাজারে, যোগগুরু রামদেবের মতো অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরাও। কালো টাকা নিয়ে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বিভাগের এই তথ্য বাজেট অধিবেশনের আগে বিরোধীদের হাতে নতুন অস্ত্র তুলে দিল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares