Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে চলছে ভোটের জন্য নানান প্রতিশ্রুতি

+100%-

প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আগামী ১৫ মার্চ  । নির্বাচনী প্রচারনায় এখন সরব নবীনগর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল। মাইকিং, মিটিং, সভা সমাবেশ ও গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা। নির্বাচনকে ঘিরে সাধারন ভোটারদের মাঝে বিরাজ করছে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা। দিনে রাতে সাধারন ভোটারদের ঘরের কড়া নাড়ছেন ১৫ জন প্রার্থী। চলছে উপজেলার সার্বিক উন্নয়ন ও সহায়তার নানান প্রতিশ্রুতি।

 

জানা যায়, প্রতীক বরাদ্বের পর পোষ্টার আর লিফলেটে ছেয়ে গেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার দেওয়াল ও রাস্তাঘাট। ভোটের হিসাব-নিকাশ চলছে পথে ঘাটে হোটেল রেস্তোরা ও পরিবহনে। বিভিন্ন ছন্দ মিশিয়ে প্রার্থীদের পক্ষে ম্লোগান ও মাইকিং প্রচার করে ভোটারদের মন আকর্ষন করার চেষ্টা চলছে অবিরত। ২০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত নবীনগর উপজেলায় এবার মোট ভোটার ২,৯৭,২২৭ জন। মোট ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১৩৭ টি । নবীনগর উপজেলায় এবার চেয়ারম্যান পদে ১০জন, ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ পদে ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২জন সহ মোট ১৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। প্রধান ২টি রাজনৈতিক দল থেকে সকল পদে একক প্রার্থী ঘোষনা করা হলেও উভয় দলে রয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী। তবে সৎ, যোগ্য ও এলাকার উন্নয়নে কাজ করবেন এমন প্রার্থীকেই চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চান ভোটাররা ।

চেয়ারম্যান পদে ভোটারদের কাছে টানতে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন আওয়ামীলীগের প্রার্থী মো. মোশারফ হোসেন সোহেল (আনারস), বিএনপি’র প্রার্থী উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইনঞ্জিনিয়ার মো.শফিকুল ইসলাম (দোয়াত কলম), আওয়ামীলীগের  বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ জিয়াউল হক সরকার (ফেজ টুপি),বিএনপি‘র বিদ্রোহী প্রাথী উপজেলা বিএনপির বহিস্কৃত সাধারন সম্পাদক  মলাই মিয়া (মটর সাইকেল), আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মনিরুজ্জামান মনির (চিংড়ি মাছ) ও ঢাকা জজ কোর্টের পিপি এড.এনামুল খায়ের বেনু (টেলিফোন) , স্বতন্ত্র প্রার্থী হুমায়ন কবির (ঘোড়া), স্বত্যন্ত্র প্রার্থী হাজী মো. কবির আহাম্মেদ (হেলিকপ্টার), ইসলামী ঐক্যজোটের নেতা মাওলানা মেহেদী হাসান (ব্যাটারী), স্বতন্ত্র প্রার্থী  রাশেদ কাদের  (কাপ- পিরিচ)। ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ ও মহিলা পদের প্রার্থীরাও দিন রাত মাঠে চষে বেড়াচ্ছেন।

 

বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে নিজ উদ্যোগে হাজির হচ্ছেন প্রার্থীরা। উপস্থিত লোকদের উদ্দেশ্যে শুনাচ্ছেন আশার বাণী।এই উপজেলায় বিএনপি, আওয়ামীলীগ ও নির্দলীয় প্রার্থীর মধ্যে ত্রিমুখী ভোট যুদ্ধ হবে বলে দাবী করছেন ভোটাররা। চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৫ জন প্রার্থীই স্বপ্ন দেখছে বিজয়ের। তবে ভোট গণনার পর কোন তিনজন হাসবে শেষ হাসি হাসবে সেই প্রত্যাশার প্রহর গুনছে সাধারন মানুষ।

এ ব্যপারে নবীনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা  মোহাম্মদ সাদেকুল ইসলাম জানান নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি সর্ম্পূন করা হয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares