Main Menu

পুলিশের উপস্থিতিতেই ১০ জনকে কুপিয়ে জখম

+100%-

নবীনগর সংবাদদাতা : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামে আসামি ধরতে গেলে পুলিশের উপস্থিতিতেই আসামীরা বাদী পক্ষের লোকজনকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দু’জনকে আশংকাজনক অবস্থায় কুমিল্লায় প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার (২২.০১.১৪) এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।
মামলার এজাহার ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়া আহতদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পূর্ব বিরোধের জের ধরে ওই গ্রামের একাধিক মামলার আসামি কাজল মিয়া ওরফে কাজল ডাকাতের নেতৃত্বে তার লোকজন গত ১৯ জানুয়ারি গ্রামের জাকির মিয়ার পরিবারের উপর সশস্্র হামলা চালায়। এতে  বেশ কয়েকজন মারাত্মকভাবে আহত হলে, জাকির মিয়া বাদী হয়ে ওইদিনই নবীনগর থানায় কাজল ডাকাতকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা করেন। এ অবস্থায় পুলিশ মঙ্গলবার আসামি ধরতে গেলে, পুলিশের উপস্থিতিতেই কাজল ডাকাত তার লোকজন নিয়ে পুনরায় জাকিরের লোকজনের উপর সশস্ত্র হামলা চালায় বলে অভিযোগ ওঠে। এ হামলায় কমপক্ষে ১০ জন গুরুতর আহত হয়। এরমধ্যে রাবেয়া বেগম (৬০) ও আনোয়ারা বেগম (৪০) কে আশংকাজনক অবস্থায় কুমিল্লায় প্রেরণ করা হয়। এছাড়া গুরুতর আহত মুজিবর রহমান, বোরহানউদ্দিন, শাহিন মিয়া, জাকির মিয়াকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
হাসপাতালে রামদার আঘাতে গুরুতর আহত মুজিবর রহমান অভিযোগ করেন, ‘পুলিশের উপস্থিতিতেই আসামি কাজল ডাকাইত রামদা নিয়ে কুপিয়ে আমাদের পরিবারের কমপেক্ষে ১০জনকে গুরুতর আহত করেন। কাজল ডাকাইতের হামলার ধরণ দেখে পুলিশ এক পর্যায়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে চইল্যা আসে।’
নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জাফর বলেন, ‘এ ঘটনায় কাজল ডাকাতকে প্রধান আসামি করে দু’টি মামলা হয়েছে। পুলিশ আসামীদের ধরতে সাড়াশি অভিযানে নেমেছে।’ তবে ‘ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ পালিয়ে এসেছে’ এ অভিযোগ তিনি অস্বীকার করেছেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares