Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের আওয়ামীলীগে মনোনয়ন প্রত্যাশী একমাত্র নারী নেতৃত্ব অধ্যাপক নুরুন্নাহার বেগম

+100%-

মিঠু সূত্রধর পলাশ,নবীনগর,প্রতিনিধি: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৫ নবীনগর উপজেলায় নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগের নবীনগর উপজেলা শাখার আহ্বায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য অধ্যাপক নুরুন্নাহার বেগম। তিনি উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও গ্রামে ব্যাপকভাবে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি নবীনগর উপজেলার সলিমগঞ্জ ইউনিয়ন ধরাভাংগা গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। ক্লিন ইমেজধারী উচ্চ শিক্ষিত এই নারী নেতৃ ইতিমধ্যে এলাকার মানুষের মধ্যে নিজস্ব ভাবমূতি তৈরী করতে সক্ষম হয়েছেন। কেন্দ্রীয় রাজনীতির পাশাপাশি প্রতিনিয়ত ছুটে যাচ্ছেন এলাকায়। নারী সমাজের মধ্যে তার রয়েছে ব্যাপক প্রভাব। এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদ নির্বাচনে (নারী) সদস্য জয়ী হয়ে কয়েক বছর ধরে এলাকার বিভিন্ন উন্নয়নে মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থাকায় আগামী নির্বাচনে তাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন নবীগরের সাধারন মানুষ। তাদের মতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে তারা ভোট দেবেন। যাকে তারা সুখে-দুঃখে পাশে পাবেন তাকেই ভোট দেবেন। অধ্যাপক নুরুন্নাহার বেগম উচ্চশিক্ষিত। ব্যাক্তি জীবনে তিনি সলিমগঞ্জ ড্রিগ্রি কলেজে শিক্ষকতা করেন। শিক্ষক হিসেবে সাধারন মানুষের সাথে খুব সহজেই তিনি মিশতে পারেন। অল্প সময়েই আপন করে নেন। তার মধ্যে গরিবের বন্ধু হওয়ার মতো অনেক গুন রয়েছে। আগামী নির্বাচনে আমরা চাই এ ধরণের মানুষ। মনোয়ন পাওয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।
অধ্যাপক নুরুন্নাহার বেগম জানান, মানুষের সেবা করার জন্য মাঠে কাজ করে যাচ্ছি। নেত্রী মনোনয়ন দিলে নির্বাচন করব। জনগনের ভালবাসায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা কে উপহার দেবো। মনোনয়ন না পেলে তিনি যাকে নৌকা প্রতিক দিবেন তার পক্ষে কাজ করবেন। এছাড়া এলাকার স্বাস্থ্য, শিক্ষা, বিদ্যুৎ, রাস্তা, সেতুসহ অবকাঠামোগত উন্নয়ন ঘটিয়ে সাধারন মানুষের সেবা করতে চাই।
তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা বিভাগ থেকে বি.বি.এ(সন্মান) ও এম.বি.এ ডিগ্রী লাভ করেন। দেশের উন্নতম বিদ্যপীঠ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন বঙ্গবন্ধুর আদশের ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। পারিবারিক ভাবেও তিনি আওয়ামীলীগ রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। তার বাবা মৃত হাজী মন্নর আলী নবীনগর উপজেলা ইউপি আওয়ামীলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ও চাচা ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার সাবেক মাননীয় সংসদ সদস্য মরহুম এভোকেট আব্দুল লতিফ। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও ক্রীয়া প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহন করে অনেক পুরুস্কার অর্জন করেন। তিনি বর্তমানে নবীনগর উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদ সদস্য।এছাড়াও তিনি এলাকার বিভিন্ন গ্রামে নারীদের নিয়ে প্রতিনিয়ত উঠান বৈঠক করে আওয়ামীলীগের দিন বদলের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন। রাজনীতির পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন ধরণের সমাজসেবা মূলক সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। এলাকার সাধারন মানুষের মতো তিনি স্বপ্ন দেখেন আধুনিক নবীনগরের।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares