Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে শিক্ষার্থীদের সহযোগীতায় তৈরী হল কাঠের ব্রীজ

+100%-


ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার রসুলাবাদ গ্রামে প্রাক্তণ শিক্ষার্থীদের সহযোগীতায় প্রায় লক্ষাধিক মানুষের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে একটি কাঠের ব্রীজ। ২০০ ফিট লম্বা এবং সাড়ে তিন ফুট প্রশস্ত এই ব্রীজটি নির্মাণ করেছে ইউনিয়নের রসুলাবাদ ইউ. এ খান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯৭ ব্যাসের প্রাত্তণ শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ও এলজি ইলেকট্রনিক্স বাংলাদেশ এর আর্থিকভাবে সহযোগীতায় ব্রীজটি নির্মাণ করা হয়েছে। এতে উপজেলার ২টি ইউনিয়নের ১২টি গ্রামের প্রায় লক্ষাধিক মানুশের শিক্ষা, চিকিৎসা কৃষি সহ যাতায়তের ক্ষেত্রে যে দুভোর্গ ছিল কাঠের ব্রীজ হওয়াতে তা কিছুটা লাঘব হবে।
স্থানীয়রা জানান, কয়েক যুগ ধরে তিতাস নদীর উপর দিয়ে পারাপার হতে বর্ষা ও শুঙ্ক মৌসুমে নৌকা ছিল এলাকাবাসীর অবলম্বন। এখন কাঠের বীজ হওয়াতে কিছুটা স্বতি হয়েছে আমাদের মনে। প্রান্তিক জনপদের কৃষি নির্ভরশীল মানুষেরা তাদের উৎপাদিত ফসলাদি বাজারে আসা নেয়ার ক্ষেতেও অনেক কষ্ট করতে হয়। তাই এ অঞ্চলের মানুষের চলাচলের সুবিধা সহ জীবন মান উন্নয়নের জন্য ব্রীজটি স্থায়ীভাবে নির্মাণের দাবি জানান।
স্কুল শিক্ষার্থী লাবুল মিয়া বলেন, আমাদের প্রায় সময় স্কুলে যেতে হলে আমাদের বই খাতা পানিতে পড়ে যেত। বর্ষা মৌসুম আসলে দুভোর্গ আরো বেশী হত। ব্রীজ হওয়াতে আমাদদের এখন স্কুলে যেতে সমস্যা হবে না।
আরেক শিক্ষার্থী মারুফ হোসেন বলেন, চলা ফেরার জন্য আপাতত ব্যবস্থা হয়েছে। ব্রীজটি স্থায়ীভাবে নির্মানের জোর দাবি জানাচ্ছি সরকারে কাছে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলী আকবুর বলেন, এলাকার প্রাপ্তন ছাত্ররা যে কাজটি করেছে তার জন্য তাদের আমি ধন্যবাদ জানাই।
এ বিষয়ে নবীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ইঞ্জিনিয়ার শফিকুল ইসলাম বলেন, এখানে স্থায়ীভাবে ব্রীজটি নির্মানের জন্য আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। আর্থিক অনুদানের বরাদ্দ পেলেই দরপত্র আহবান করা হবে।
গতকাল শনিবার বিকেলে ব্রীজটি আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নবীনগর উপজলা চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শফিকুল ইসলাম। এসময় অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকামহানগর দায়রাজজ আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট সালাউদ্দিন, রসুলাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান আলী আকবর, এনটিভির সিনিয়র রিপোর্টার হাসান জাবেদ সহ গ্রামের গণমান্য ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও ৯৭ ব্যাসের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে অতিথিবৃন্দ বহুকাংক্ষিত ব্রীজটির উদ্বোধন করেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares