Main Menu

নবীনগরে ১২৬ টি পূজা অঙ্গণে জমে উঠেছে শারদীয় দুর্গোৎসব

+100%-

নবীনগর প্রতিনিধি: শরৎ ঋতুর অবগাহিকায় মা এলেন বাংলার উৎসব মুখর প্রতিটি পূজা অঙ্গঁনে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব। দেবীর আর্শিবাদ পাওয়ার আশায় সনাতন ধর্মাবলম্বী প্রতিটি মানুষ প্রতিক্ষায় ছিলেন পুজার এই শুভ লগ্নের। শাস্ত্রীয়মতে, জগতের মঙ্গল কামনায় এ বছর মা দুর্গা মর্ত্যলোকে এসেছেন শান্তির বার্তা নিয়ে। শশুর বাড়ী কৈলাস থেকে কন্যা রূপে মাদুর্গা পিত্রালয়ে বেড়াতে এসছেন। ভক্তরা মনে করেন অশুর শক্তির বিনাশে সৃষ্টি হলো এক মহাশক্তির আবির্ভাব দেবতাদেও তেজরশ্মি থেকে আবির্ভূত হলেন অশুর বিনাশী দেবী দুর্গা । গত ০৩ অক্টোবর বৃহস্পতিবার মহাষষ্ঠীর মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা এবং ০৮ অক্টোবর মঙ্গলবার বিজয়াদশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হবে শারদীয় দুর্গোৎসব।
ব্রহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় এ বছর ১২৬ টি পূজা মন্ডপে জাকজমকপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব। নবীনগর পৌরএলাকা ও আশপাশের একাধিক পূজা মন্ডপ গিয়ে দেখা যায়, দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষণীয় করে তুলতে প্রতিমায় শৈল্পিক কারুকাজ ও রং-বেরংঙ্গের মনোপমুদ্ধকর আলোকসজ্জায় সজ্জিত বিভিন্ন পুজা অঙ্গণ।
নবীনগর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অজন্ত ভদ্র বলেন, নবীনগর উপজেলায় এ বছর ১২৬ টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই বিভিন্ন পূজা মন্ডপে মতবিনিময় সভা ও পরিদর্শন করেছেন এবাদুল করিম বুলবুল এমপি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার মোঃ আনিছুর রহমান সহ একাধিক রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উদযাপন করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রশাসনের আন্তরিকতা ও বিভিন্ন পদক্ষেপে আমরা সন্তুষ্ট।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares