Main Menu

নবীনগরে যুবলীগের সভাপতি পদ হারিয়ে সংবাদ সম্মেলন

+100%-

নবীনগর প্রতিনিধি:  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতির পদ হারিয়ে যুবনেতা সামস আলম রবিবার (০৪/১১/১৮) রাতে নবীনগর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কান্না জড়িত কণ্ঠে নিজের জীবনের নিরাপত্তা দাবি করে বলেন,‘সম্পূর্ণ ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অগঠনতান্ত্রিক উপায়ে আমার পদ থেকে আমাকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। এর পেছনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক স্থানীয় এমপিকে ভুল বুঝিয়ে ‘মূখ্য ভূমিকা’ রেখেছেন। আমি এর প্রতিকার চাই।’ এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবও দেন।
গত বুধবার (৩০/১০/১৮) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরযুক্ত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বর্তমান সভাপতি সামস আলমকে ‘অসুস্থ’ উল্লেখ করে কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মারুফুর রহমানকে ‘ভারপ্রাপ্ত সভাপতি’র দায়িত্ব দেওয়ার পর তিনি (আলম) এ সংবাদ সম্মেলন করলেন।
এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস বলেন,‘সে (আলম) বর্তমানে অসুস্থ। স্থানীয় এমপি তাঁর চিকিৎসার দায়িত্বও নিয়েছেন। এ অবস্থায় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংগঠনকে গতিশীল ও শক্তিশালী করতে গঠনতন্ত্রের আলোকেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’
উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিম মুঠোফোনে বলেন, ‘গঠনতন্ত্র মোতাবেক সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা যুবলীগ। সেখানে আমার কিছু করার ছিলো না।
উল্লেখ্য যে, যুবলীগ নেতা সামস আলম একটি বেসরকারি অনলাইন টিভিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে নিজের জীবনের নিরাপত্তা ও যুবলীগে তার পদ সুরক্ষার দাবী জানিয়ে ১০ মিনিটের একটি ভিডিও বার্তা ছড়িয়ে দিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে। পাশাপাশি তিনি শনিবার (০৩/১১) বিকেলে নবীনগর প্রেসক্লাব চত্ত্বরে উপজেলা যুবলীগ আয়োজিত শোকাবহ জেল হত্যা দিবসের এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখার সময় কান্না জড়িত কণ্ঠে নিজের জীবনের নিরাপত্তা ও যুবলীগের সাংবিধানিক নিয়ম অনুসরণ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান। পরে সামস্ অলমের অনুসারি যুবলীগের নেতা কর্মিরা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares