Main Menu

নবীনগরে আধিপত্য বিস্তারের জেরে আবারো উত্তেজনা

+100%-

মিঠু সূত্রধর পলাশ,নবীনগর প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামে একটি খুনের ঘটনায় মামলা হওয়ার তিন মাস পর গত সোমবার দুপুরে বাদী পক্ষের বেশ কিছু ঘরে হামলা চালিয়েছে আসামী পক্ষ আলম গ্রুপের লোক জন। এ ঘটনায় আবারো এলাকায় নতুন করে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। আবারো যে কোনো সময় ঘটতে পারে হতাহতের ঘটনা।
আধিপত্য বিস্তারের পূর্ব বিরোধের জেরে গত ৩ মার্চ উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামে দুই পক্ষের সংঘর্ষ বাঁধে। এর জের ধরে মো: দুলাল মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে নবীনগর থানায় একাধীক মামলা চলমান রয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত দুই বছর ধরে লক্ষ্মীপুর গ্রামের এ বিরোধে এক পক্ষে নেতৃত্ব দেন আলম মিয়া অন্যপক্ষের নেতৃত্ব দেন মুসলিম মিয়া।
জানা যায়, বছর দুয়েক আগে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে আতশ আলীর আর হুরাগাজীর বাড়ির মধ্যে ঝগড়ার ঘটনায় মামলা-মোকদ্দমা হয়। এটি মিমাংসার জন্য এলাকায় এসে দু’পক্ষকে নিয়ে গত ৩ মার্চ বৈঠকে বসার কথা ছিলো নবীনগর থানা পুলিশের। কিন্তু ওইদিনই একপক্ষ আরেক পক্ষের ওপর হামলা করে।
স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২ মার্চ রাত সাড়ে ৯টার দিকে জাহের ও জিল্লু মিয়ার ওপর মুসলিম , জামাল, মোহন মাস্টার ও জালালের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। এর মধ্যে জিল্লু মিয়া গুরুতর আহত হলে তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। এ ঘটনার জের ধরে রাত ৩টার দিকে বাড়িতে যাওয়ার পথে দুলাল মিয়া কে হামলা করে প্রতিপক্ষের লোকজন পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে।
নবীনগর থান সূত্রে জানা যায়,গত সোমবার দুপুরে আসামী পক্ষ আলম গ্রুপের লোকজন বাদী পক্ষ মুসলীম গ্রুপের লোকজনের বেশ কিছু বাড়িঘরে হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares