Main Menu

দশটি অসাধারণ ওয়েবসাইটস যেগুলো ছাড়া ভার্চুয়াল জীবন বৃথা! রিভিউ! ট্রাই না করলে মিস!

+100%-

ইন্টারনেটকে আমি যাদুর বাক্স বলি। এক ক্লিকে কত কিছু করা যায়! পুরো দুনিয়া হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে। পলকেই বিশ্বভ্রমন সম্ভব। আজকাল এমনকিছু নেই যা ভার্চুয়ালি করা যায়না! ইন্টারনেটের কমন বেনিফিটগুলো তো সবাই ভোগ করছেন। কিন্তু এর অলিতেগলিতে অসাধারন কিছু পাড়া আছে যেখানে পা না ফেলা মানে জীবন বৃথা। আমি আমার সহব্লগারদের জন্য বেছে আনলাম সেরকমই অসাধারন দশটি সাইট যা আপনার জীবনকে আরো আনন্দময় এবং সহজ করে দেবে!

১) Pixect
ফেসবুক, সেলফির এ যুগে নিজের ছবি স্পেশাল এফেক্টসহ আপলোড করা একটা প্যাশন এবং ফ্যাশন। নেটে হাজারটা এমন সাইট ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। কিন্তু এই সাইটটা আমার নজরে সেরা। নিজের ছবি তুলে মুহূর্তেই যেকোন এফেক্ট দিতে পারবেন ১৩৫ টা স্পেশাল এফেক্টসমৃদ্ধ এই সাইটটির সাহায্যে! সব ধরনের ঋতু, সাদাকালো থেকে রংগিন যেকোন কালার, স্কেচ, রেট্রো, সফট, জানালা দিয়ে আসা রোদে তোলা ছবি, মাল্টিফ্রেম সহ আরো কত কি! কনট্র্যাস্ট, ব্রাইটনেস ঠিক করে নরমাল ছবিও তুলতে পারেন। আপনারা ক্লিক করে নিজেই দেখে নিন, সব বলে আসলেই শেষ করতে পারবনা। ফেসবুক, টুইটারে শেয়ার করার অপশনও অবশ্যই আছে।
ব্যবহার করা খুবই সহজ। ব্যাস লিংকে গিয়ে Get started now তে ক্লিক করে পরের পেজে এলাউ ক্লিক করে নিজেকে স্ক্রিনে আনবেন, তারপরে বিভিন্ন এফেক্টের মধ্যে যেটা ভালো লাগে সেটাতে বসিয়ে ছবি তুলবেন।

২) The Scale of Universe!
এই সাইটটি নিয়ে যতোই বলব কম পরে যাবে। সবচেয়ে বড় গ্রহ থেকে শুরু করে সবচেয়ে ছোট এটমের মধ্যে যতো জিনিস আছে তার তুলনাময় ভ্রমন! এটা আসলে অনেক মজার অনুভূতি, বিশ্বভ্রম্মান্ডের সবকিছু যেন চোখের সামনে, ব্যবহার না করলে বোঝা যাবে না।
ক্লিক করার পরে ভাষা ইংলিশ চুজ করুন, পরের পেজে স্টার্টে ক্লিক করুন। স্ক্রল বার ব্যবহার করে জুম করবেন বস্তুগুলোর ওপরে, এবং যদি ডিটেইলে জানতে চান ক্লিক করবেন বস্তুটার ওপরে। ব্যাস আপনি রেডি অভূতপূর্ব এক জ্ঞানের রাজ্যে ডুব দেবার জন্যে!

samupagla007

৩) A Soft Murmur!
যারা প্রকৃতিপ্রেমি কিন্তু জীবিকার দায়ে ব্যস্ত কোলাহলপূর্ণ শহরে বসবাস করেন তাদের জন্যে অসাধারন এই ওয়েবসাইট। বৃষ্টি, আগুন, বাতাস, পাখি থেকে শুরু করে যেকোনকিছুর মধ্যে থেকে একটা সিলেক্ট করে প্লে ক্লিক করুন। তারপরে সাউন্ড, এবং ইন্টেনসিটি স্ক্রল বার ঘুরিয়ে সুবিধামতো এডজাস্ট করে নিন। কানে একটা এয়ারফোন লাগিয়ে চোখবন্ধ করে ডুবে যান প্রাকৃতিক, জীবন্ত, মনমুগ্ধকর সব শব্দের মাঝে। যেকোনকিছুই ট্রাই করতে পারেন, আমার সবচেয়ে প্রিয় ঝিঁঝি পোকার ডাক !

৪) Virtual Makeover!
এটা মেয়েদের জন্যে একটা সেই মাত্রার ব্লেসিং। নিজের ছবি কম্পিউটার থেকে আপলোড করুন। তারপরে নিজের চোখ, নাক এডজাস্ট করতে দেবে, সে অনুযায়ী বক্স বসিয়ে ক্লিক করতে থাকুন Next এ। তারপরে অপার সম্ভাবনার দুয়ার খুলে যাবে। কত ব্র্যান্ডের ফেস পাউডার, লিপস্টিক, আইলাইনার, ব্লাশ, মাশকারা নিজের ওপরে এপ্লাই করতে পারবেন তার ইয়াত্তা নেই। সবকিছুর প্রডাক্ট হিসটোরি থুক্কু হিস্ট্রি ডিটেইলে দেওয়া থাকে। বিভিন্ন শেড এপ্লাই করে নিজের ওপরে কোন প্রোডাক্ট স্যুট করে তা বুঝতে পারবেন। সবচেয়ে মজার দুটো এপ্লিকেশন হলো ১৩৩৬ টির মতো হলিউড সেলিব্রেটির হেয়ারস্টাইল নিজের ওপরে ট্রাই করা। আর হ্যালুইন সাজ! এটা বেস্ট। যেকোন বন্ধুর ছবি দিয়ে ক্লিক করা মাত্র হ্যালুইন কস্টুইমে সাজিয়ে দেবে পুরোপুরি, ভয়ে পায়িয়ে দিতে পারেন তাকে।

নিচে আমি অভিনেত্রী তিশাকে ১৯ টির মধ্যে একটি হ্যালুইন সাজে এবং ৪৪ টির মধ্যে একটি কমপ্লিট সেলিব্রেটি লুকে (কেটি পেরির লুকে) দেখাচ্ছি।

effect

এগুলো অটোমেটিক ক্লিক করা মাত্রই হয়। তবে আপনি চাইলে একটা একটা প্রোডাক্ট ট্রাই করে সুন্দর করে রিয়ালিস্টিক মানানসইভাবে নিজের পছন্দমতো মেপআপে সাজতে পারেন। পার্লারে না গিয়ে মনের মতো করে সেজে ছবি তুলতে পারেন বাড়িতে বসেই!
ফিসফিস করে গার্ল টু গার্ল টিপস দিয়ে নেই একটু। উঁচু করে খোপা করা ছবি হলে ভালো হয় কেননা অন্য হেয়ারস্টাইলগুলো ট্রাই করতে বেশি সুবিধা হয় তখন। নাহলে ডটগুলো বেশি ক্লিক করে ঠিক জায়গায় আনতে হবে রিয়াল চুল ঢাকার জন্যে।
আর ছেলেরা এই সাইটে বিভিন্ন সানগ্লাস ট্রাই করা ছাড়া তেমন কিছু করার নেই আপনাদের, এটা মেইনলি ফিমেল বেসড মেকআপ সাইট।

৫) Virtual Instruments!
এটা মিউজিক রিলেটেড। এখানে পিয়ানো, ড্রাম, গিটার বাজানো যায়। ফ্রি টাইমে মিউজিক পাগলেরা ট্রাই করতে পারেন, বেশ জীবন্ত ও মজার। ব্যাস মাউজ ঘোরাবেন পছন্দের ইন্সট্রুমেন্টের ওপরে, ক্লিকও করতে হবেনা। মনে হবে আসলেই বাজাচ্ছেন। সাউন্ড কোয়ালিটি ভাল। কিবোর্ড অপশনও আছে।

Azurill

৬) Listen On Repeat
এটা বেশ কাজের একটা সাইট। যেকোন ইউটিউব ভিডিও স্টপ করার আগ পর্যন্ত রিপিট হতেই থাকবে। আমি যেমন একটা গান অনেকবার শুনি তখন এই সাইটটি দুর্দান্ত কাজ করে। সাইটে গিয়ে ভিডিও সার্চ করতে পারেন আবার যেকোন ইউটিউব ভিডিওর ইউআরএলে youtube লেখাটার পাশে repeat টাইপ করলেও হবে। এটা যা যা রিপিট করছেন সেগুলো অটোমেটিকালি ফেবারিট লিস্টে রেখে দেয়। খুব দক্ষভাবে কাজ করে।

৭) Cleverbot!
এটা নিঃসংগ মানুষদের অথবা যারা কথা বলতে পছন্দ করেন তাদের জন্য স্বর্গ থেকে এসেছে। লিংকে গিয়ে বক্সে কিছু একটা লিখে think about it এ ক্লিক করলেই আপনার কথার সাথে মিলিয়ে মানুষের মতো কথা বলে উঠবে! যেমন,

Hi!
Hello. How are you?
Great and you?
Still good.
You are dumb man!
No i’m not.
Why will I believe you?
You don’t need too.

বোল্ড করা কথাগুলো রোবটের বলা এবং বাকিটা আমার। সারাদিন কথা বলতে থাকুন বোর হবেন না। এমনভাবে বলবে যেন বুঝেই বলছে, একদম মানুষের মতো কথা বলে!

Azurill-14

৮) The faces of facebook!
এটা শুধু ফান। এখানে দুনিয়ার সকল ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ছবি একটা গ্রিডে দেখানো হয়, আপনি জুম করে চেহারা দেখে ক্লিক করে সেই একাউন্টে যেতে পারবেন। কাউকে খোঁজার বাসনা থাকলে ব্যবহার করবেন না কেননা এত মুখের মধ্যে পাবেন না। ব্যাস মজা করে সব ফেসবুক ব্যাবহারকারীকে এক জায়গায় দেখা!

sam

৯) Mount Everest in 3D!
সবাই চায় মাউন্ট এভারেস্টের উঁচু চূড়াটায় পা রাখতে। কিন্তু এই কঠিন কাজ তো সবার সাধ্য না। কিন্তু ইন্টারনেট আছে কি করতে? এই সাইট এভারেস্টের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একটা 3D ভ্রমনের ব্যবস্থা করেছে। সাউন্ড এবং পুরো এক্সপেরিয়েন্স ভীষন রকম বাস্তব। ট্রাই করলেই বুঝতে পারবেন। লিংকে ক্লিক করলে লোড হতে থাকবে তারপরে START THE CLIMB এ ক্লিক করলে জার্নি শুরু হয়ে যাবে। আপনার ভ্রমন নিরাপদ এবং আনন্দময় হোক!

xlarge

১০)Free rice!
এই পোষ্টটা যে মোটামুটি একটা ফানপোষ্ট সেটাতো বুঝে গিয়েছেন কিন্তু এই ওয়েবসাইটটা খুবই সিরিয়াস। এটা এত মহৎ একটা উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে যে প্রশংসা করার ভাষা আমার নেই। এই সাইটে বিভিন্ন বিষয়ের ওপরে অনেক প্রশ্ন থাকে। প্রতি প্রশ্নের সঠিক উত্তরের জন্যে তারা ১০ গ্রেইনস করে চাল গরীব দেশের ক্ষুধার্ত মানুষের জন্যে ডোনেট করে। লিংকে গিয়ে পছন্দের সাবজেক্ট চুজ করুন। তারপরে প্রশ্ন আসতে থাকবে যা সাধারনত কঠিন হয়না। প্রতি সঠিক উত্তরের পরে পাশে থাকা থালায় চাল যোগ হতে থাকবে। ভুল উত্তর দিলে লস নেই, কিছু যোগ হবেনা শুধু। সাথে সাথে অন্য প্রশ্ন এসে যাবে, সেটা ট্রাই করবেন। যতক্ষন চান খেলতে পারবেন। যত ঠিক উত্তর দিতে পারবেন ততটা চাল ডোনেট হবে! ফ্রি টাইমে বসে খেলতে খেলতে কোন ক্ষুধার্তের মুখে অন্ন তুলে দিতে পারার চেয়ে অসাধারন আর কি হতে পারে?

Azurill-1468546828-03641d9_xlarge

এই পোষ্টে বিভিন্ন ধরনের সাইট বেছে এনেছি। নিজের নিজের রুচি অনুযায়ী কে কোনটা বেশি পছন্দ করলেন তা বলতে ভুলবেন না। অনেক ধন্যবাদ সকল পাঠককে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares