Main Menu

বাহরাইন বি এন পি কেন্দ্রীয় কমিটি’র উদ্যোগে বাংলাশের ৪৬ তম মহান বিজয় দিবস উদযাপন।

+100%-
বাংলাদেশের ৪৬ তম মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে ৭১’র রণাঙ্গনে মেজর জিয়া শীর্ষক আলোচনা সভা করেছে বাহরাইন বি এন পি কেন্দ্রীয় কমিটি।
গত ২৯ শে ডিসেম্বর,শুক্রবার রাত ০৮ ঘটিকার সময় মানামা বাহরাইন বি এন পি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাহরাইন বি এন পি কেন্দ্রীয় কমিটি’র সভাপতি ও বাহরাইনস্থ বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজ ম্যানেজিং কমিটি’র সম্মানিত সদস্য – জনাব হামেদ কাজী হাসান।
বাহরাইন কেন্দ্রীয় বি এন পি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম এইচ সোকার্নো’র সঞ্চালনায়
উক্ত আলোচনা সভায় সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাহরাইন কেন্দ্রীয় বি এন পি’র উপদেষ্ঠা শাহজাহান মিয়া, সহ সভাপতি মোঃ আনোয়ার ফারুক, মোঃ নবী মিয়া ও মোঃ ইব্রাহিম মিয়া,
আরো উপস্থিত ছিলেন বাহরাইনস্থ জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি আলা উদ্দিন মজুমদার আলো,জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলেরর সভাপতি সফি উদ্দিন আহম্মেদ ও উপদেষ্টা মোঃ ইয়াকুব হোসেন, বাহরাইন কেন্দ্রীয় বি এন পি’র যুব বিষয়ক সম্পাদক মোঃ কামাল উদ্দিন,মানামা মহানগর বি এন পি’র সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রুবেল কবির ও প্রচার সম্পাদক মোঃ সোহেল, বাহরাইনস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বি এন পি’র সভাপতি আইটি তাজুল ইসলাম ও বাহরাইনস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবদলের সভাপতি আলা উদ্দিন আহম্মেদ প্রমুখ।
প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাহরাইন কেন্দ্রীয় বি এন পি’র সাধারণ সম্পাদক সোহেল সিরাজী বাপ্পি, শুভেচ্ছা বক্তা ছিলেন  যুগ্ম সম্পাদক মোঃ হারুনূর রশিদ,
আরো বক্তব্য রাখেন বাহরাইন কেন্দ্রীয় বি এন পি’র সাংগঠনিক সম্পাদক মোকবুল হোসেন মুকুল, জাতীয়তাবাদী  যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার গিয়াস কামাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ আহম্মেদ, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুজন মোল্লা,  বাহরাইনস্থ বি বাড়িয়া জেলা বি এন পি’র সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক সাচ্চু আহম্মেদ প্রমুখ।
বক্তাগন বলেন, নিজের জীবনবাজী রেখে সেদিন মেজর জিয়া’র স্বাধীনতার ঘোষনার পর পরই বাংলার মুক্তিকামী আপামর জনতা মুক্তিযোদ্ধে ঝাঁপিয়ে পরে নয় মাসের রক্তক্ষয়ী সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে হানাদার বাহিনীর কবল থেকে বাংলার মাটি দখলমুক্ত করে ৭১’র ১৬ ই ডিসেম্বরে কাঙ্খিত বিজয় ছিনিয়ে এনে বিশ্বের মানচিত্রে স্বাধীন সার্বভূম রাষ্ট্র হিসাবে বাংলাদেশের নাম লিখিয়ে দেন ।
বক্তাগন আরো বলেন ৭১’র মুক্তিযোদ্ধে তৎকালীন সময়ে বাংলার সকল স্তরের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সামরিক ও বেসামরিক ব্যাক্তিবর্গের বিচক্ষণতা এবং সময়োপযোগী পদক্ষেপ এর ফলশ্রুতিতেই অতি স্বল্প সময়ে বাংলার মুক্তিকামী জনতার বিজয় সুনিশ্চিত হয়েছিল।
এছাড়া ও উক্ত  আলোচনা সভায় বাহরাইন কেন্দ্রীয় বি এন পি ও অঙ্গসহযোগি সংগঠন এবং আঞ্চলিক শাখা কমিটি’র বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
পরিশেষে, মহান মুক্তিযোদ্ধে জীবন উৎস্বর্গকারী সকল বীর শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় এবং জীবিত সকল মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দের সুখ শান্তি কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares