Main Menu

প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ডের মাটিতে জয় পেলো বাংলাদেশ

+100%-

মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে আট উইকেটে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে টেস্টে প্রথমবারের মতো দেশটির বিপক্ষে জয় পেলো বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ক্রিকেটের কোন সংস্করণেও এটাই বাংলাদেশের প্রথম জয়।

এই জয়ের মাধ্যমে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। নয়ই জানুয়ারি হ্যাগলি ওভালে হবে সিরিজের দ্বিতীয় এবং শেষ টেস্ট।

পাঁচ উইকেটে ১৪৭ রানে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেছিল বাংলাদেশ।

শেষ দিনে ১০.৪ ওভারের মধ্যেই ২২ রান যোগ করার পর অল আউট হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৬৯ রান।

ফলে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ছিল মাত্র ৪০ রান। দুই উইকেট হারালেও সহজেই জয় তুলে নেয় মুমিনুল হকের দল।

এই জয়ের মাধ্যমে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টুয়েন্টি- সব সংস্করণ মিলিয়ে ৩২-ম্যাচের জয় খরার অবসান ঘটলো বাংলাদেশের। সেই সঙ্গে দেশের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের টানা ১৭ টেস্টের অপরাজেয় যাত্রাও থামল এই পরাজয় দিয়ে।

প্রথম ইনিংসে ৩২৮ রানে নিউজিল্যান্ডকে গুড়িয়ে দেয়ার পর ব্যাট হাতে বাংলাদেশ ৪৫৮ রানের বড় সংগ্রহ গড়েছিল।

দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে এসে মাত্র ৪০ রানের লক্ষ্য দিয়ে ১৬৯ রানেই গুটিয়ে যায় স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। দুই উইকেট জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

পঞ্চম দিনে সাদমান ইসলামের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নেমেছিলেন নাজমুল হোসেন। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারেই উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেয়ায় সাদমানকে তুলে নেন টিম সাউদি।

এরপর নাজমুলকে নিয়ে ৭৫ বলে ৩১ রানের জুটি গড়েছিলেন মুমিনুল।। কিন্তু কাইল জেমিসনের বলে স্লিপে রস টেলরের হাতে ক্যাচ হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় নাজমুলকে। এরপর মুশফিকের বাউন্ডারি দিয়ে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত হয়ে যায়।

নিউজিল্যান্ডকে অল আউটের পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছেন এবাদত হোসেন। আগের দিন তিনি নিয়েছেন চার উইকেট। শেষ দিনে তিনি নিয়েছেন রস টেলর আর কাইল জেমিসনকে। তাসকিন আহমেদ নিয়েছেন রাচিন রবীন্দ্র আর টিম সাউদির উইকেট। ট্রেন্ট বোল্টের পঞ্চম উইকেট নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে গুড়িয়ে দেন হাসান মিরাজ।

ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন এবাদত হোসেন চৌধুরী।সূত্র: বিবিসি বাংলা