Main Menu

ইসলামী ব্যাংকের চট্টগ্রাম অঞ্চলের ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলন অনুষ্ঠিত

+100%-

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর চট্টগ্রাম উত্তর ও দক্ষিণ জোন এবং আগ্রাবাদ ও খাতুনগঞ্জ কর্পোরেট শাখার ব্যবসায় উন্নয়ন সম্মেলন ২৬ এপ্রিল ২০১৭, বুধবার চট্টগ্রামের একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংকের চেয়ারম্যান আরাস্তু খান প্রধান অতিথি হিসেবে সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। ভাইস-চেয়ারম্যান প্রফেসর সৈয়দ আহসানুল আলম, এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব:) ইঞ্জিনিয়ার আব্দুুল মতিন ও পরিচালক প্রফেসর ড. মো: সিরাজুল করিম বিশেষ অতিথি হিসেবে এতে বক্তব্য রাখেন। ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী মো. আব্দুল হামিদ মিঞার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মো. মাহবুব-উল-আলম ও মোহাম্মদ মনিরুল মওলা এবং এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও কর্পোরেট ইনভেস্টমেন্ট ডিভিশন-১ প্রধান মুহাম্মদ কায়সার আলী, এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও চট্টগ্রাম উত্তর জোনপ্রধান মো. মোস্তাফিজুর রহমান সিদ্দিকী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জোনপ্রধান মো. নিজামুল হক ও আগ্রাবাদ কর্পোরেট শাখা প্রধান মোহাম্মদ শহীদ উল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।

ব্যাংকের নির্বাহীবৃন্দ, চট্টগ্রাম অঞ্চলের ৪৪টি শাখার ব্যবস্থাপক, ইনভেস্টমেন্ট ইনচার্জ ও নির্বাচিত কর্মকর্তাগণ সম্মেলনে অংশগ্রহন করেন। সম্মেলনে জোন ও শাখাসমূহের পারফর্ম্যান্সে সন্তোষ প্রকাশ করে আমানত সংগ্রহ, বিনিয়োগ সম্প্রসারণ ও রেমিট্যান্স সেবা বৃদ্ধিসহ সামগ্রিক ব্যবসায়িক লক্ষ্য অর্জনে শাখা সমূহকে আরো তৎপর হওয়ার তাগিদ দেয়া হয়।

আরাস্তু খান প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, ইসলামী ব্যাংকের শক্তিশালী শরীয়াহ্ সুপারভাইজরি কমিটি ও ক্যাপিটাল বেইজ রয়েছে। শরীআহ পরিপালন, মানসম্মত সেবা এবং সততার নীতি অনুসরণের কারণে গ্রাহকরা ইসলামী ব্যাংককে বিশ্বাস করে। গ্রাহকদের এ আস্থা ধরে রাখতে তিনি ব্যাংকারদের আরো বেশি যতœবান হওয়ার পরামর্শ দেন। ব্যাংকের আমানত বৃদ্ধি, বিনিয়োগ সম্প্রসারণ, রেমিট্যান্স ও পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প সেবা আরো গতিশীল করতে তিনি ম্যানেজারদের দিকনির্দেশনা দেন।

প্রফেসর সৈয়দ আহসানুল আলম বলেন, সম্পদ বিতরণে বন্টনমূলক সুবিচারনীতি বাস্তবায়ন কেবল ইসলামী অর্থনীতির বিকাশেই সম্ভব। ইসলামী ব্যাংক এ লক্ষ্যেই কাজ করছে। ইসলামী ব্যাংককে দেশের উন্নয়ন ইঞ্জিন উল্লেখ করে তিনি এসএমই ও পল্লী বিনিয়োগ বৃদ্ধির উপর গুরুত্বারোপ করেন। দেশের গণমানুষের উন্নয়ন ও গরিবী হঠানোর জন্য পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের প্রসারে নির্দেশনা দেন তিনি। ইসলামী অর্থনীতির উন্নয়নে ব্যাংকের ডিপোজিট বৃদ্ধি করতে সংশিষ্ট সকলকে নির্দেশ দেন তিনি।

মেজর জেনারেল (অব:) ইঞ্জিনিয়ার আবদুল মতিন বলেন, ইসলামী ব্যাংক বিশ্বের শীর্ষ ১০০০ ব্যাংকের অন্যতম। সকল মানুষের ব্যাংক হিসেবে এ ব্যাংক দেশের সামগ্রিক কল্যাণ ও উন্নয়নে কাজ করছে।

মোঃ আব্দুল হামিদ মিঞা সভপাতির ভাষণে বলেন, ব্যাংকের সকল কার্যক্রমে শতভাগ শরিয়াহ নীতি ও ব্যাংকিং নীতিমালা পরিপালন করতে হবে। এ ব্যাংকের সেবা পৌঁছে দিতে তিনি শাখা ব্যবস্থাপকদের প্রতি জোর আহবান জানান।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares