Main Menu

৪৭ বছর পর জাতির জনকের চিঠি খোঁজে পেল কসবার বিমল চক্রবর্ওী

+100%-

কসবা প্রতিনিধি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া : মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২৬ মার্চ মাস,বাঙালি জাতির এক ঐতিহাসিক গৌরবোজ্বল দিবস। সারাদেশ দিবসটি উদযাপন করেছেন দেশবাসী।স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল উওরণের উদযাপনে বর্ণিল উৎসবে মাতাল হয়েছেন সারা দেশ।‘স্বাধীনতা সংগ্রামে পাকহানাদার বাহিনীর গুলিতে দেবেন্দ্র চন্দ্র চক্রবর্ওী আত্মোৎসর্গ করেন।

“আমার আন্তরিক সমবেদনা ও আপনার শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতিও রইল আমার প্রাণঢালা সহানুভূতি। এমন নি:স্বার্থ মহান দেশ প্রেমিকের স্ত্রী হওয়ার গৌরব লাভ করে সত্যি আপনি ধন্য হয়েছেন। প্রধান মন্ত্রীর এাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে আপনার পরিবারের সাহায্যার্থে মহকুমা প্রশাসকের নিকট (১০০০/হাজার) টাকা পাঠানো হলো। পরিশেষে আমার প্রাণভরা ভালবাসা ও শুভেচ্ছা নিন বলে নিজ হাতে জাতির জনক স্বাক্ষর করেন।’

জাতির জনকের পাঠানো টাকাটা মৃত দেবেন্দ্র চন্দ্র চক্রবর্ওীর স্ত্রী শচী রানী চক্রবর্ওী,কসবা টাকাটা গ্রহণ করেছিলেন। আজ ১০ বছর গত হলো টাকা গ্রহণ কারী শচী রানী চক্রবর্ওী পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেছেন পরপারে। মহান স্বাধীনতার প্রায় ৪৭ বছর পর জাতির জনকের স্ব হস্তে স্বাক্ষরিত লিখিত পত্রটি খোঁজে পেলেন কসবা সদরের বর্তমানে শান্তি পাড়ার পাকহানাদার বাহিনীর হাতে নিহত দেবেন্দ্র চন্দ্র চক্র বর্ওীর পরিবারের সদস্য ও অসুস্থ্য বিমল চন্দ্র চক্রবর্ওী । মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস মাসে আইনমন্ত্রী ও কসবা-আখাুড়ার সংসদ সদস্য আনিসুল হক এই পরিবারের সদস্যদের প্রতি সুদৃষ্টি দিবেন বলে নিহত দেবেন্দ্র চন্দ্র চক্রবর্ওীর ছেলে বিমল চক্রবর্ওী শুক্রবার ২৩ মার্চ ২০১৮ইং বিকালে পাক্ষিক অপরাধপত্র’র সম্পাদক ও কসবা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি খ.ম.হারুনুর রশীদ ঢালীকে কিছু করার জন্য অনুরোধ করেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares