Main Menu

কসবায় অর্থের অভাবে চিকিৎসা থমকে আছে। সাড়ে পাচ মাস অচেতনাবস্হায় শিশু কন্যা

+100%-

কসবা প্রতিনিধি:: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার  কসবা উপজেলার খাড়েরা ইউনিয়নের দেলী গ্রামের অসহায় দর্জি মো: ইকবাল খানের শিশু কন্যা হাবিবা খাতুন (সাড়ে ৪ বছর)  বয়সে দূরারোগ্য ব্যাধি  মাথায় টিউমারে আক্রান্ত।

ঢাকা পিজিসহ একটি হাসপাতালে এক মাস চিকিৎসা নিয়ে অর্থের অভাবে এখন তাঁর চিকিৎসা থমকে আছে।
অসুস্হায় সাড়ে পাঁচ মাস একই বিছানায় অচেতন হয়ে পড়ে থেকে মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হাবিবা খাতুনের কেমোথেরাপি ও হাসপাতালের অন্যান্য খরচের জন্য প্রায় ২০ / ২৫ লাখ টাকার প্রয়োজন। কিন্তু দরিদ্র দর্জি গ্রাম্য টেইলার্স ইকবাল খানের পক্ষে এই টাকার যোগান দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এ জন্য দেশের প্রধান ও আইনমন্ত্রীসহ বিত্তবানদের কাছে মেয়ের চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তারা ।
তার বাবা ইকবাল খান ও মা মরিয়ম বেগম দুই হাত তুলে আল্লাহর কাছে দয়া চেয়ে সাহায্যে চান।
একই গ্রামের জেলার বিশিষ্ট আইনজীবি এড,সালাউদ্দিন আহাম্মেদ খান প্রায় ছুটে  গিয়ে হাবিবাকে এক নজর দেখতে আসেন। তিনি দেশের প্রধান মন্ত্রী ও আইন মন্ত্রীসহ সমাজের বিওবানদের কাছে চিকিৎসার জন্য সাহায্যের হাত প্রসার করতে আবেদন রাখেন।
প্রতিদিন টিউমারে আক্রান্ত হাবিবা খাতুনের সুস্বাস্হ্য কামনা করে দোয়া করেন তার পরিবারের সদস্যরা।
সংবাদ পেয়ে সাথে সাথে সরেজমিনে দেলী গ্রামে ছুটে যাওয়ার পর হাবিবার জন্য দোয়ার অনুষ্কঠান অনুষ্ঠঠিত হয়। উক্ত দোয়ার অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করেন কসবা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি খ,ম,হারুনুর রশীদ ঢালী, এড,সালাউদ্দিন আহাম্মেদ খান, নাজমুল হক রোকন, আজমল হোসেন প্রমুখ।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares