Main Menu

রআখাউড়ার স্থলবন্দর দিয়ে ভ্রমণ কর জমা দেয়ার ‘জটিলতার’ অবসান। সরকারি ছুটির দিনেও সোনালী ব্যাংকের বুথ খোলা থাকবে।।

+100%-

আখাউড়ার স্থলবন্দর দিয়ে ভ্রমণ কর জমা দেয়ার ‘জটিলতার’ অবসান হতে চলেছে। এখন থেকে সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির দিনেও স্থলবন্দরের সোনালী ব্যাংকের বুথ খোলা থাকবে।
ভ্রমণ কর দেয়ার বিষয়ে যাত্রীদের সুবির্ধাথে একই সঙ্গে ব্যাংকের সময়সূচিতে পরিবর্তন করা হয়েছে। শিগগিরই নতুন এ নিয়ম কার্যকর হতে যাচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সুত্র নিশ্চিত করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক বিন্দু ভূষণ বসাক ৩০ নভেম্বর স্বাক্ষরিত সোনালী ব্যাংকের ম্যানিজিং ডিরেক্টর ও সিইও বরাবরা লেখা চিঠিতে জানান, শুধুমাত্র রাজস্ব আহরণের স্বার্থে সাপ্তাহিক ছুটি, সরকারি ছুটির দিনসহ অন্যান্য দিন সকাল সাড়ে সাতটা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় সোনালী ব্যাংকের জিএম আবুল লায়েছ পাটোয়ারী গত ৪ ডিসেম্বর কুমিল্লার জেনারেল ম্যানেজারের কাছে লেখা এক চিঠিতে এ বিষয়ে অবগত করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান আজ সোমবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ বিষয়ে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংক থেকে অনুমতি পাওয়া গেছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী সপ্তাহের মধ্যেই নতুন এ নিয়ম কার্যকর করা যাবে। ’

প্রসঙ্গত, আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে যাওয়ার পথে সব দেশের নাগরিকদেরকে পাঁচশত টাকা ভ্রমণ কর দিতে হয়। সোনালী ব্যাংকের নির্ধারিত রশিদের মাধ্যমে এ ভ্রমণকর জমা দিয়ে এর একটি কপি কাস্টমসকে দেয়ার নিয়ম রয়েছে। কিন্তু শুধুমাত্র সরকারি সময়সূচি মেনে ব্যাংক খোলা থাকতো বলে যাত্রীরা বিপাকে পড়েন।
এছাড়া কাস্টমস কর্তৃপক্ষ বিশেষ ব্যবস্থায় ভ্রমণ কর নেয়া বন্ধ করে দিলে আরো সমস্যা দেখা দেয়।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares