Main Menu

আখাউড়া উপজেলা প্রশাসনের মাদকবিরোধী অভিযান:: দুই মাদক ব্যবসায়ীকে কারাদন্ডসহ জরিমানা

+100%-

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখ রোজ মঙ্গলবার দুপুর .০ ঘটিকায় চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে আখাউড়া উপজেলাধীণ আখাউড়া উত্তর ইউনিয়ন এলাকায় অভিযান ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। আখাউড়া উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ শামছুজ্জামান মহোদয়ের নেতৃত্বে ও  বিজিবি আযমপুর ক্যাম্পের সার্বিক সহযোগিতায় পরিচালিত অভিযানে আযমপুর রেলস্টেশন এলাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশী কার্যক্রম চলে। তল্লাশি ও অভিযানে রাত :০ মিনিটে  মোছা ফাতেমা বেগম (৩০) স্বামী সোহেল মিয়া সাং সৈয়দপুর থানা: কসবা জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও অপর মোছাঃ সারবানু (৪৫) স্বামী সাজন মিয়া গ্রাম কুইয়াপানিয়া থানা কসবা জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে ০৪ কেজি গাজাজাতীয় মাদক অভিনব কায়দায় পায়ে স্কচটেপ দিয়ে বেধে পাচারকালে আযমপুর রেলস্টেশন এলাকায় হতে ভ্রাম্যমান আদালত আটক করে মাদক পাচারের এই কৌশল দেখে উপস্থিত সবাই বিষ্ময় প্রকাশ করেন।

নিজ হেফাজতে মাদক বহন করার অপরাধে তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৯০ এর ধারা ৯ লংঘণ করায় একই আইনের ১৯(১) এর (ক) ধারা মোতাবেক মোছা ফাতেমা বেগম (৩০) স্বামী সোহেল মিয়া সাং সৈয়দপুর থানা: কসবা জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে ০৬ (ছয়) মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড  ও অপর মোছাঃ সারবানু (৪৫) স্বামী সাজন মিয়া গ্রাম কুইয়াপানিয়া থানা কসবা জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে  থানা আখাউড়া জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে ০১ (এক)বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ০২ মাসের বিনাশ্রম  কারাদন্ড  প্রদান করা হয়।

এখানে উল্লেখ্য যে, আযমপুর রেলস্টেশন দিয়ে মাদকজাতীয় দ্রব্য পাচার হয় মর্মে সাধারণ জনগণের অভিযোগ রয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত ও অভিযানে সহায়তাকারী সাধারণ জনতা তাৎক্ষনিক সাজা দেয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সবসময় এ ধরণের কার্যক্রম চালানোর জোর দাবী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট উপস্থাপন করেন। সাধারণ জনগনের অভিপ্রায় অনুযায়ী উপজেলা প্রশাসনের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।প্রেস বিজ্ঞপ্তি






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares