Main Menu

বিজয়নগরে সরকারি খাল দখলের মহোৎসব

+100%-

প্রতিনিধি :ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে চলছে সরকারি খাল দখলের মহোৎসব। এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি উপজেলা সদরের মির্জাপুর ভূমি অফিসের সামনের সরকারী খালটি ভরাট করে ফেলছে। ইতিমধ্যেই কয়েকজন দখলদার খালের অংশ বিশেষ ভরাট করে সেখানে বাড়ি-ঘর ও দোকান পাট নির্মাণ করেছেন। এলাকার সাধারন লোকজন দখলবাজদের ভয়ে কিছু বলতে পারছেনা।
এলাকাবাসী জানান, খালটি ভরাট করার ফলে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা বাঁধাগ্রস্ত হবে। এতে করে পরিবেশের ভারসাম্যও নষ্ট হচ্ছে। অভিযোগকারীরা বলেন সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ শাহআলমকে ম্যানেজ করে এলাকার তাহের মিয়া, ইদন মিয়া, আক্তার মিয়া, রওশন মিয়াসহ একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তি খালে মাটি ফেলে ভরাট করছে। ইতিমধ্যেই দখলবাজদের অনেকে খাল ভরাট করে বাড়ি ঘর দোকান নির্মান করেছেন।
এ ব্যাপারে খাল ভরাটকারী রওশন মিয়া বলেন, সাব রেজিস্ট্রার মোঃ শাহ আলমের অনুমতি নিয়েই আমি খাল ভরাট করেছি।
এ ব্যাপারে সাব-রেজিষ্টার মোঃ শাহআলমের সাথে কথা বলার জন্য তার মোবাইল ফোনে (০১৭৩৭-৮৫৬৪৫৯) কয়েক দফা যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
এ ব্যাপারে ইছাপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আকতার হোসেন বলেন, সরকারি খালটি ভরাটের ফলে এলাকার পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা বাঁধাগ্রস্ত হবে। এতে করে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। তিনি অবিলম্বে খালটি দখলমুক্ত করার দাবি জানান।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ বশিল হক ভূইয়া খাল ভরাটের কথা স্বীকার করে বলেন, খাল ভরাটকালে গত সোমবার একটি ট্রাক আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছি। ইতিমধ্যে যারা খাল দখল করে ঘর-বাড়ি ও দোকান  নির্মান করেছেন তাদেরকে উচ্ছেদ করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি খাল দখল মুক্ত করতে এলাকাবাসীকে সচেতন হওয়ার পাশাপাশি প্রশাসনকে সহযোগিতা করার আহবান জানান।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares