Main Menu

বিজয়নগর উপজেলার সীমান্ত দিয়ে ঢুকছে নতুন মাদক। ৫০০ প্যাথেড্রিন ইনজেকশন সহ এক মহিলা আটক

+100%-

শামীম উন বাছির : সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে নতুন করে ঢুকছে ব্যাথানাশক ইনজেকশন প্যাথেড্রিন।  দেশে এটি মাদকাশক্তদের নেশার উপকরণ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর যে ১০ ক্যাটাগরির মাদক মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করে এর মধ্যে পেথিড্রিন ইনজেকশন অন্যতম। গত সন্ধ্যায় সিএনজি করে চান্দুরা যাওয়ার সময় বিজয়নগর উপজেলার আদমপুরে ৫০০টি  প্যাথেড্রিন ইনজেকশনসহ লিপি (২৫) নামের এক মহিলাকে বিজয় নগর থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। উদ্ধারকৃত ইনজেকশনের মূল্য প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা। গ্রেফতারকৃত লিপি জানিয়েছে,  সীমান্ত এলাকার আদমপুরের জনৈক বাবুল মিয়া তার কাছে মাল (প্যাথেড্রিন ইনজেকশ) দিয়ে যায়। প্রতিটি প্যাথিড্রিন ইনজেকশন ৩শ’ টাকা করে কিনে ৫শ’ টাকায় বিক্রি হয়। তবে ঢাকার বাজারে প্যাথিড্রিন ইনজেকশন মূল্য প্রতিটি ৫শ’ থেকে ৮শ’ টাকা। গতকালের অভিযানের নেতৃত্বদানকারী বিজয়নগর থানার পরিদর্শক রসুল নিজামী জানিয়েছেন, আমাদের কাছে খবর আসে একজন মহিলা  মাদক বহনকারী  আদমপুর রেল ষ্টেশন থেকে মাদকদ্রব্য নিয়ে বিক্রির জন্য ঢাকায় যাচ্ছে। আমরা চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহন তল্লাশি করি। এসময় আচার আচরনে অসঙ্গতি লক্ষ্য করে লিপিকে চ্যালেঞ্জ আটক করা হয়। তখন তল্লাশি করে তার সাথে  ব্যাগ ভর্তি প্যাথিডিন ইনজেকশনগুলো উদ্ধার করা হয়।
বিজয় নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রসুল নিজামী আরও বলেছেন, আমরা নিশ্চিত হয়েছি একটি বড় মাদক ব্যবসায়ী চক্র এর সাথে জড়িত। এ ধরনের মহিলারা ক্যারিয়ার হিসাবে কাজ করে।  গ্রেফতারকৃত লিপির বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ উপজেলায় ।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares