Main Menu

বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

দলকে দৃঢ় ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে হবে :: মোকতাদির চৌধুরী এমপি 

+100%-
দলকে দৃঢ় ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, বেসরকারি বিমান ও পর্যটন বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি।
তিনি গতকাল শনিবার বিকেলে বিজয়নগর উপজেলার চম্পকনগর কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম ভূইয়ার সভাপতিত্বে সম্মেলনে মোকতাদির চৌধুরী এমপি আরো বলেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।
বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরোধিতাকারীদের উদ্দেশে মোকতাদির চৌধুরী বলেন, ‘নির্বাচনে নৌকার জন্য কতজনকে অনুরোধ করেছি, ওই লোকগুলোর লজ্জা হওয়া উচিত। অন্তত একটু অনুতপ্ত হইয়েন। অনেকের খামখেয়ালি আর চতুরতার জন্য আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি।
তিনি বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রসঙ্গে আরো বলেন দলের যেসব নেতাকর্মী দিনের বেলায় নৌকা আর রাতে ঘোড়া প্রতীকের সমর্থন করেছেন তারা সাবধান হয়ে যান।
নেতাকর্মীদের প্রতি প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, নির্বাচনের সময় দল না করলে কখন করবেন? যারা নির্বাচনে বিরোধিতা করেছিলেন তাদের সবাইকে আমরা চিনি। তারা একজনও কমিটিতে থাকবে না। আমার যদি কমিটিতে স্বাক্ষর করতে হয় আপনারা কেউ থাকবেন না। দলকে দৃঢ় ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে হবে।
তিনি বলেন, আজকে হাজার হাজার লোক স্লোগান দিচ্ছেন, আপনারা নির্বাচনের দিন কোথায় ছিলেন? যদি নৌকার জন্য খেটে থাকেন তাহলে কোথায় গেলো ভোট? নিজেকে নিজে প্রশ্ন করেন। দিনেরবেলা নৌকা আর রাতের বেলা ঘোড়া? সবাই নৌকা মার্কার সমর্থক কিন্তু ভোটের বাক্সে ঘোড়া।সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর ভূইয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর মৃধা প্রমুখ।
পরে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে ২য় পর্বে ভোট গ্রহনের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে বলে জানা যায়।
অনুষ্ঠিত সম্মেলনে জেলা, উপজেলা, বিভিন্ন ইউনিয়নের আ.লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares